west bengal election 2021 5th phase: রণক্ষেত্র সল্টলেক, একে অপরকে দোষারোপ সুজিত-সব্যসাচীর – west bengal election 2021 5th phase: political clash in saltlake sujit bose and sabyasachi dutta accuses each other

Share Now





হাইলাইটস

  • ভোট দিতে গেলেই গুলি করে দেবে বাহিনী। এমনটাই অভিযোগ সল্টলেক অঞ্চলের (Political Clash) একাধিক ভোটারের।
  • কখনও সুকান্তনগর, কখনও নয়াপট্টি আবার কখনও বাসন্তি কলোনিতে বচসা বেধে যায়।
  • দোষারোপ, পালটা দোষারোপ করতে শুরু করেন সব্যসাচী দত্ত (Sabyasachi Dutta) ও সুজিত বসু (Sujit Bose)।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: ভোট দিতে গেলেই গুলি করে দেবে বাহিনী। এমনটাই অভিযোগ সল্টলেক অঞ্চলের (Political Clash) একাধিক ভোটারের। যা নিয়ে ধুন্ধুমার কাণ্ড বিধাননগর বিধানসভা কেন্দ্রে (West Bengal Election 2021 5th Phase)। পঞ্চম দফা ভোটের সকাল থেকেই দফায় দফায় উত্তেজনা ছড়ায় সল্টলেক এলাকায়। কখনও সুকান্তনগর, কখনও নয়াপট্টি আবার কখনও বাসন্তি কলোনিতে বচসা বেধে যায়। তৃণমীল-BJP দু’পক্ষের মারমুখী কর্মীদের হাতহাতিতে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সল্টলেক। দোষারোপ, পালটা দোষারোপ করতে শুরু করেন সব্যসাচী দত্ত (Sabyasachi Dutta) ও সুজিত বসু (Sujit Bose)।

West Bengal Election 2021 5th Phase Live: আক্রান্ত BJP প্রার্থী রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়
সকালে সল্টলেকের শান্তিনগর এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। বুথের বাইরে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন BJP-তৃণমূল কর্মীরা। একাধিক মহিলারাও মারধরে জড়িয়ে পড়েন। শুরু হয় ধস্তাধস্তি। একে অপরের দিকে আধলা ইট ছু়ড়তে থাকেন দুই দলের কর্মীরা। জয় বাংলার পালটা জয় শ্রীরাম স্লোগান চলতে থাকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় কেন্দ্রীয় বাহিনী। দুই পক্ষের জনতাকেই ছত্রভঙ্গ করে তাঁরা। পুলিশ এরিয়া ডমিনেশন করতে শুরু করে। তা সত্ত্বেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। মাইকিং করতে শুরু করে পুলিশ। পুলিশ কর্মীদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তৃণমূল কর্মীরা। ঘটনাস্থলে পৌঁছন সুজিত বসু। কিছুক্ষণের মধ্যে বাসন্তীদেবী কলোনি এলাকাতেও উত্তেজনা ছড়ায়। সেখানেও শুরু হয় দু’পক্ষের ইটবৃষ্টি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেত কিছু জায়গায় লাঠি উঁচিয়েও ভিড়ের দিকে তেড়ে যান পুলিশকর্মীরা।

BJP-র নির্বাচনী কার্যালয় পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে
বেলা গড়াতেই ফের উত্তেজনা ছড়ায় নয়াপট্টি এলাকা। ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ ওঠে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন সব্যসাচী দত্ত। তাঁর অভিযোগ, ‘তৃণমূলের গুণ্ডাবাহিনী এই ধরণের ঘটনা ঘটাচ্ছে।’ এদিকে, সুজিত বসুর অভিযোগ, ‘সব্যসাচী দত্তের উস্কানিতেই অশান্তি তৈরি হয়েছে।’ দু’পক্ষের তরফই কমিশনকে সমস্ত ঘটনা জানানো হয়েছে বলে খবর।

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।






Source link