West Bengal Assembly Election Update Tmc Reply After Bjp 900 Crore Scam Accusation – ‘৯০০ কোটি টাকা ভাইপোর’, ভাইরাল অডিয়োর আসল সত্য ফাঁস করল তৃণমূল | Eisamay

Share Now





এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। শুভেন্দু বলেন, ‘ ৯০০ কোটি টাকা ভাইপোর কাছে পৌঁছে দেন বিনয় মিশ্র।’ এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে পাল্টা জোড়াফুল শিবিরের আক্রমণ, দুই দফার নির্বাচনে বাংলায় ভরাডুবি হয়েছে গেরুয়া শিবিরের তাই এখন নোংরা খেলায় নেমেছে BJP। ‘একটা তৈরি করা গল্পকে বাজারে ছাড়া হয়েছে’, বলে মন্তব্য করেন তৃণমূল নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee)। আক্রমণাত্মক কুণাল ঘোষও (Kunal Ghosh)। বলেন, ‘ভোটে পরাজয় নিশ্চিত জেনে ভিত্তিহীন অভিযোগ। চরিত্রহননের রাজনীতি। মানুষের মন পাওয়ার ব্যর্থ প্রচেষ্টা। ভোটের সময় এধরনের কথাবার্তার কোনও যৌক্তিকতা নেই।’

রবিবাসরীয় রাজনীতির ময়দান সরগরম আরও এক অডিয়ো টেপ নিয়ে। যেই প্রসঙ্গ তুলে সাংবাদিক বৈঠকে শুভেন্দু বলেন, ‘ সরকারি মদতে কয়লা দুর্নীতি হয়েছে। বিনয় মিশ্রের সঙ্গে তৃণমূলের যোগসাজশ রয়েছে। বিনয় মিশ্র সম্পর্কে চুপ তৃণমূল। ৯০০ কোটি টাকা ভাইপোর কাছে পৌঁছে দেন বিনয় মিশ্র। ধৃত IC অশোক মিশ্র টাকা পৌঁছে দিতেন। পুলিশের একাংশ এই চক্রে জড়িত। মুখ্যমন্ত্রী দায়িত্ব এড়াতে পারেন না। মমতাই প্রধান কর্মকর্তা।’ তৃণমূলের ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরকেও টাকা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন শুভেন্দু।

মমতাকে নিয়ে মুকুলের বিস্ফোরক মন্তব্যে নতুন করে চাঞ্চল্য

ভাইরাল অডিয়ো টেপ নিয়ে শুভেন্দুর দাবি, ওই টেপে যাদের গলা ও কথাবার্তা শোনা যাচ্ছে তাঁরা গণেশ বাগারিয়া ও বিনয় মিশ্র। এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে পাল্টা সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের দাবি, ‘অডিয়ো টেপে টিভিতে দেখা গিয়েছে, দুটো লোক কথা বলছে। কিন্তু কে বা কারা কথা বলছে তা কেউ জানে না। কেউ পরিচয় নিশ্চিত ও করতে পারছে না। শুধু কুৎসা করতে সম্পূর্ণ সাজানো একটা টেপ।’

অভিষেককে আক্রমণের পাল্টা দলীয় মুখপাত্র কুণাল ঘোষের নিশানায় শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর দাবি, ‘ পাচার কাণ্ডে সরকারি মদতের অভিযোগ এনেছেন তাহলে তো বলতে হবে সেখানে শুভেন্দু অধিকারী নিজেও সেই সরকারের মন্ত্রী ছিলেন। এমনকি ওইসব এলাকায় দলের অবজারভারও ছিলেন তিনি।’ তৃণমূল নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের মতো কুণাল ঘোষও বলেন,’ নন্দীগ্রাম সহ দু দফাতেই গো-হারান হারতে চলেছে BJP। তাই এসব আনতাবড়ি ভুলভাল কথা বলে যাচ্ছেন শুভেন্দু সহ BJP নেতারা।’

বয়ালের বুথ নিয়ে মমতার অভিযোগ কি সত্যি? উত্তর দিল কমিশন

BJP নেতা অমিত মালব্যর দাবি, ‘অভিষেককে মাসে পাচারের ৪০ কোটি টাকা দেওয়া হত।’ তৃণমূল থেকে BJP-তে যোগ দেওয়া দীনেশ ত্রিবেদী বলেন, ‘আমি মানতেই পারি না যে মুখ্যমন্ত্রী এসব কিছু জানেন না। আমরা এই পাপের ভাগী হতে চাই না। তাই বেরিয়ে এসেছি।’ এদিনও এই টাকা লেনদেন প্রসঙ্গে ফের আরও একবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুচিরা নারুলার কথা উত্থাপন করেন শুভেন্দু। প্রসঙ্গত, কয়লা পাচারকাণ্ডে ভোটের মুখে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল CBI। যা ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল রাজ্য রাজনীতিতে। অভিষেকের শ্যালিকাকেও এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।






Source link