TMC wants to hold vote share of 2019 Loksabha Election in 2021 Assembly Election also

Share Now





২০১৯-এর লোকসভায় তৃণমূলের শক্তি যেখানে অটুট

২০১৯-এর লোকসভায় তৃণমূলের শক্তি যেখানে অটুট

২০১৬-য় বিরাট শক্তি বাড়িয়ে বাংলার ক্ষমতায় এসেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর ২০১৯-এর লোকসভায় ধাক্কা খেতে হয়েছে বিজেপির কাছে। বিজেপি এই তিন বছরে নিজেদের শক্তি অনেকগুণ বাড়াতে সমর্থ হয়েছে। ফলে ২০১৯-এ তারা ২ থেকে বেড়ে ১৮টি লোকসভা আসনে জয় পায়। কিন্তু একুশের তৃতীয় দফায় যে আসনগুলিতে ভোট, সেখানে তৃণমূলের শক্তি অটুট থাকে।

২০১৬-র নির্বাচনে তৃতীয় দফার ৩১ আসনের ফল

২০১৬-র নির্বাচনে তৃতীয় দফার ৩১ আসনের ফল

তৃণমূল তাই চাইছে ২০১৯-এর ভোট ধরে রাখত। তাহলেই তৃতীয় দফা কব্জা করা যাবে। ২০১৬-য় ৩১ আসনের মধ্যে ২৯টি আসনে জয়যুক্ত হয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। বাতি দুটি আসন গিয়েছিল বাং-কংগ্রেস জোটের পক্ষে। বামেরা একটি এবং কংগ্রেস একটি আসনে জয়লাভ করেছিল। বামেরা জিতেছিল দক্ষিণ ২৪ পরগনার কুলতলিতে। আর কংগ্রেস জিতেছিলেন হাওড়ার আমতায়।

২০১৯-র নির্বাচনে তৃতীয় দফার ৩১ আসনের ফল

২০১৯-র নির্বাচনে তৃতীয় দফার ৩১ আসনের ফল

আর ২০১৯-এও লোকসভা ভোটের নিরিখে তৃণমূল কংগ্রেস ২৯টি আসনে এগিয়েছিল। বিজেপির কাছে পিছিয়ে পড়েছিল দুটি আসনে। তবে বাম-কংগ্রেসের জেতা দুটি আসনে নয়, বিজেপি এগিয়ে গিয়েছিল তৃণমূলের জেতা দুটি আসনে। সেই দুটি আসন হল হুগলির পুরশুড়া ও গোঘাট। আর ২০১৬-য় হারা দুটি আসন কুলতলি ও আমতায় এগিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস।

২০১৯-এর ভোট ধরে রাখলেই পিছন ফিরে তাকাতে হবে না

২০১৯-এর ভোট ধরে রাখলেই পিছন ফিরে তাকাতে হবে না

মঙ্গলবার তৃতীয় দফার ভোটে তৃণমূল তাই চাইছে ২০১৯-এর ভোট ধরে রাখতে। কারণ লোকসভা নির্বাচনে ৩১ আসনেই ভোট শতাংশ বেড়েছে তৃণমূলের। তাই ২০১৯-এর ভোট ধরে রাখলেই পিছন ফিরে তাকাতে হবে না। বিজেপিকে টেক্কা দিতে ২০১৯-এর ফল ধরে রেখে হুগলির দুটি আসনে বিজেপিকে হারানোর অঙ্ক কষছে তৃণমূল।

২০১৯-এ তৃণমূলের ভোট প্রাপ্তির হার ৫০ শতাংশর উপরে

২০১৯-এ তৃণমূলের ভোট প্রাপ্তির হার ৫০ শতাংশর উপরে

তৃতীয় দফার ৩১ আসনে তৃণমূলের ভোট শতাংশ বেড়েছিল ২০১৯-এ। ২০১৬-র তুলনায় ২০১৯-এর নির্বাচনে বেশি ভোট পেয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। ২০১৬-য় তৃণমূল ভোট শতাংশ ছিল ৫০.১৮। আর ২০১৯-এ তৃণমূল পেয়েছিল ৫১-০৫ শতাংশ ভোট। প্রথমত ভোট প্রাপ্তির হার ৫০ শতাংশর উপরে রয়েছে, দ্বিতীয়ত লোকসভা নির্বাচনে ০.৮৭ শতাংশ বেড়েছে। তাই ২০১৯-এই আস্থা খুঁজছে তৃণমূল।

তিন বছরে ভোট বৃদ্ধির হার ধরে রাখতে মরিয়া বিজেপি

তিন বছরে ভোট বৃদ্ধির হার ধরে রাখতে মরিয়া বিজেপি

আর বিজেপি চেষ্টা করছে গত তিন বছরে ভোট বৃদ্ধির হার ধরে রেখে তৃণমূলকে টেক্কা দিতে। ২০১৯-এর পর কেটে গিয়েছে আরও দুটি বছর। বিজেপি আরও ঘাঁটি গাড়তে সফল হয়েছে, ভেঙেছে তৃণমূলকে। সংগঠনও বেড়েছে। আর তা দিয়ে যদি চারটি আসনও তারা ছিনিয়ে নিতে পারে, তাহলে তারা কাঙ্খিত লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাবে।






Source link