st. xavier’s college alumni association: এগিয়ে এল সেন্ট জেভিয়ার্সের প্রাক্তনী সংসদ, দুবাই থেকে কলকাতা ফিরল ১৩০ জন! – st. xavier’s college alumni association arranged for flight from uae to kolkata for 130 indian citizens

Share Now





হাইলাইটস

  • দুবাই থেকে ১৩০ জন ভারতবাসীকে দেশে ফেরানোর বন্দোবস্ত করল তাঁরা।
  • গত ১৯ অগস্ট কলকাতায় এক চাটার্ড বিমানে করে ফিরলেন দীর্ঘদিন দেশের বাইরে আটকে থাকা ওই ১৩০ জন।
  • ৮০ জন ইতোমধ্যে রওনা দিয়েছেন উত্তরবঙ্গ ও সিকিমের উদ্দেশে।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: ফের মানবিক সাহায্য নিয়ে এগিয়ে এল সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের প্রাক্তনী সংসদ। এবার দুবাই থেকে ১৩০ জন ভারতবাসীকে দেশে ফেরানোর বন্দোবস্ত করল তাঁরা। গত ১৯ অগস্ট কলকাতায় এক চাটার্ড বিমানে করে ফিরলেন দীর্ঘদিন দেশের বাইরে আটকে থাকা ওই ১৩০ জন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন দুজন অন্তঃসত্ত্বা ও বয়স্ক মানুষরা। ১৩০ জনের মধ্যে ৮০ জন ইতোমধ্যে রওনা দিয়েছেন উত্তরবঙ্গ ও সিকিমের উদ্দেশে।

লকডাউনের জেরে প্রায় তিন মাসেরও বেশি সময় ধরে দুবাইতে আটকে ছিলেন তাঁরা। দেশে ফেরার সময় তাঁদের করোনা টেস্টও হয়। রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরই কলকাতার উদ্দেশে যাত্রা করেন তাঁরা। আর তাঁদের ফিরে আসার ক্ষেত্রে যাবতীয় সাহায্য হয় সেন্ট জেভিয়ার্সের প্রাক্তনী সংসদ। ফাদার ডমিনিক স্যাভিও জানিয়েছেন, ‘আমরা দুবাইয়ের ভারতীয় কনস্যুল জেনারেল, পশ্চিমবঙ্গ সরকার, ইউএই সরকার, ডিজিসিএ, ভারত সরকার, পূর্বাচল প্রবাসী মিলন, ইউএই মারোয়ারি যুব মঞ্চ ও গোটা জেভিয়ার্স পরিবারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

এর আগেও নানা ধরনের মানবিক কাজে বারবার এগিয়ে এসেছে সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ কর্তৃপক্ষ ও প্রাক্তনী সংসদ। উম্পুনের ধ্বংসের পর সেন্ট জেভিয়ার্সের অধ্যক্ষ ডমিনিক স্যাভিও ও অন্যান্য কয়েকজন আধিকারিক গিয়েছিলেন সুন্দরবনের নারায়ণপুরে। সেখানে তাঁরা অসহায় মানুষদের হাতে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীও তুলে দেন। অবশ্য উম্পুনের পর মোট চারবার সেন্ট জেভিয়ার্স কর্তৃপক্ষ সাহায্য নিয়ে পৌঁছে গিয়েছিলেন সুন্দরবনের বিভিন্ন প্রান্তে।

আরও পড়ুন: এক থালা মাংস, সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ! আসল ঘটনা কী?

সেন্ট জেভিয়ার্সের অধ্যক্ষ ডমিনিক স্যাভিও জানিয়েছেন, এখানেই তাঁদের কার্যক্রম শেষ হয়ে যাচ্ছে না। ভবিষ্যতেও তাঁরা সুন্দরবনের বিভিন্ন প্রান্তে কাজ চালিয়ে যাবেন। গোটা সুন্দরবনের মানোন্নয়নের জন্যেও কাজ করবেন তাঁরা। গ্রামের পড়ুয়াদেরও করা হবে যাবতীয় সাহায্য।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন।






Source link