Prashant Kishore: বিরোধীদের মেগা বৈঠকের আগে তৃতীয় ফ্রন্টের জল্পনা ওড়ালেন পাওয়ারও – sharad pawar clarifies that meeting in his residence is not a third front meet

Share Now





হাইলাইটস

  • বিকেল ৪টে থেকে NCP প্রধান শরদ পাওয়ারের বাড়িতে বসবে রাষ্ট্রমঞ্চের বৈঠক।
  • দিল্লির ‘পাওয়ার’ বৈঠকের তোড়জোর শুরু হতেই রাজনৈতিক মহল মনে করছিল যে PK-র ছকেই অ-কংগ্রেসি দলের বিকল্প ফ্রন্ট গড়ে উঠতে পারে ভারতে।
  • প্রশান্ত কিশোরের দাবি, নরেন্দ্র মোদীকে ঠেকানোর লক্ষ্যে তৃতীয় বা চতুর্থ ফ্রন্ট গড়ার প্রচেষ্টা সদর্থক হবে না।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: বিকেল ৪টে থেকে NCP প্রধান শরদ পাওয়ারের বাড়িতে বসবে রাষ্ট্রমঞ্চের বৈঠক। BJP বিরোধী এই বৈঠক নিয়ে যখন জল্পনা তুঙ্গে, তখনই পিছু হঠলেন সকলে। বৈঠকের মাত্র কয়েকঘণ্টা আগেই তৃতীয় ফ্রন্টের জল্পনা ওড়ালেন শরদ পাওয়ার। তিনি জানিয়েছেন, এটা কোনও তৃতীয় ফ্রন্টের বৈঠক নয়। একইসঙ্গে টুইটে সদ্য তৃণমূলে যোগদানকারী নেতা যশবন্ত সিনহা বলেন, ‘রাষ্ট্রমঞ্চের একটি বৈঠকে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এর সঙ্গ মিশন-২০২৪-এর কোনও সম্পর্ক নেই।’ একই বক্তব্য শিবসেনার সঞ্জয় রাউথের। তাঁর কথায়, ‘আমি মনে করি না এটা কোনও ফ্রন্টের বৈঠক। বরং এই প্রথমবার বিরোধীদের একত্রে নিয়ে একটি বৈঠক বসছে।’ জানা গিয়েছে, এদিনের বৈঠকে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা ছাড়াও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে একাধিক শিল্পপতিকেও।
মিশন ২০২৪? মঙ্গলবার পাওয়ারের ডাকে বিরোধীদের বৈঠক
অন্যদিকে, বাংলার নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (
Mamata Banerjee) BJP বিরোধী মুখ হিসেবে ভাবতে শুরু করেছেন সকলে। বিস্ফোরক দাবি করলেন প্রশান্ত কিশোর (Prashant Kishore)। দিল্লিতে শরদ পাওয়ারের (Sharad Pawar) ডাকা বৈঠকই কি তৃতীয় ফ্রন্টের ভীত তৈরি করবে? এই নিয়ে জল্পনার মাঝেই অবাক করে দিলেন ভোটকুশলী PK। তিনি বলেন, ‘কোনও তৃতীয় বা চতুর্থ ফ্রন্ট BJP-কে ঠেকাতে পারবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন না।’ এই মন্তব্য ঘিরেই ফের তোলপাড় দেশের রাজনৈতিক সমীকরণ।
পিকে-র রাজনৈতিক সন্ন্যাস উঠছে? TMC-IPac চুক্তিতে জল্পনা তুঙ্গেদিল্লির ‘পাওয়ার’ বৈঠকের তোড়জোর শুরু হতেই রাজনৈতিক মহল মনে করছিল যে PK-র ছকেই অ-কংগ্রেসি দলের বিকল্প ফ্রন্ট গড়ে উঠতে পারে ভারতে। তবে সব জল্পনায় ইতি টেনে দেয় প্রশান্ত কিশোরের এই একটি মন্তব্য। যা কার্যত তাঁর ভূমিকা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি করেছে। সোমবার দ্বিতীয়বারের জন্য NCP প্রধান শরদ পাওয়ারের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রশান্ত কিশোর। সেই বৈঠকের পরই অ-কংগ্রেসি BJP বিরোধী দলগুলিকে নিয়ে বৈঠক ডাকেন তিনি। মনে করা হচ্ছিল প্রশান্ত কিশোরের ছকেই এই বৈঠক ডাকা হয়েছে। এদিকে, PK বলেন, ‘শরদ পাওয়ারের সঙ্গে আমার বৈঠকের কোনও সম্পর্ক নেই। এর আগে তাঁর সঙ্গে কাজ করার সুযোগ হয়নি। তাই একে অপরকে ভালো করে জানার জন্য এই বৈঠক। রাজনীতির খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। BJP-র বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কী করা উচিত, কী নয়, তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে ঠিকই। তবে তৃতীয় ফ্রন্ট গড়ার কথা মাথায় আনছি না। এই ধরনের ফ্রন্টে বিশ্বাসী নই।’

প্রশান্ত কিশোরের দাবি, নরেন্দ্র মোদীকে ঠেকানোর লক্ষ্যে তৃতীয় বা চতুর্থ ফ্রন্ট গড়ার প্রচেষ্টা সদর্থক হবে না। অতএব ‘মিশন ২০২৪’ নিয়ে ওঠা কানাঘুষো যে বাস্তবে হচ্ছে না, তা স্পষ্টই ইঙ্গিত দিলেন তৃণমূলের এই ভোটকুশলী।






Source link