oxygen crisis in west bengal: অক্সিজেন পেয়েও মিলল না সিলিন্ডার, বেহালায় স্বামীর চোখের সামনে মৃত্যু স্ত্রীর – Covid Patient Dies In Vidyasagar State General Hospital In Behala Due To Oxygen Crisis | Eisamay

Share Now





হাইলাইটস

  • করোনাভাইরাসের (Coronavirus) দ্বিতীয় ঢেউয়ে সবচেয়ে বেশি সংকট দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের
  • অক্সিজেন না পেয়ে মঙ্গলবার বেহালায় মৃত্যু হল করোনা আক্রান্ত এক মহিলার।
  • কাঠগড়ায় বিদ্যাসাগর স্টেট জেনারেল হাসপাতাল।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: করোনাভাইরাসের (Coronavirus) দ্বিতীয় ঢেউয়ে সবচেয়ে বেশি সংকট দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের (Oxygen Shortage)। দেশজুড়ে অক্সিজেনের আকালে একাধিক হাসাপাতালে মৃত্যুর খবর শিরোনামে জায়গা করে নিচ্ছে রোজ। এবার সেই ঘটনাই ঘটল খাস কলকাতায়। শেষ মুহূর্তে অক্সিজেন জোগাড় করতে পেরেও মিলল না সিলিন্ডার। আর এর ফলেই প্রবল শ্বাসকষ্টে মৃত্যু হল এক মহিলার। ঘটনাটি ঘটেছে বেহালার বিদ্যাসাগর হাসপাতালে।

অক্সিজেন না পেয়ে মঙ্গলবার বেহালায় মৃত্যু হল করোনা আক্রান্ত এক মহিলার। কাঠগড়ায় বিদ্যাসাগর স্টেট জেনারেল হাসপাতাল। মৃতের নাম যমুনা নাথ। পরিবারের অভিযোগ, হাসপাতাল অক্সিজেনের ব্যবস্থা করতে পারেনি। এমনকী মৃতার স্বামী অক্সিজেনের খোঁজ পেলেও সিলিন্ডার দিতে পারেনি হাসপাতাল। চোখের সামনে ছটফটিয়ে প্রাণ গিয়েছে স্ত্রীর। এমনটাই জানিয়েছেন স্বামী। যদিও হাসপাতালের দাবি, তাদের কাছে অক্সিজেন রয়েছে। সমস্যা হচ্ছে ফ্লো মিটারের অভাবে।

জানা গিয়েছে, যমুনা নাথকে সোমবার রাতে বিদ্যাসাগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রবল শ্বাসকষ্টের সমস্যা ছিল তাঁর। এদিকে হাসপাতালে পর্যাপ্ত অক্সিজেন না থাকায় একটি সিলিন্ডার থেকেই একাধিক রোগীকে অক্সিজেন দেওয়ার কাজ চলছিল বলে খবর। যমুনা নাথের স্বামী জানান, রাত ২টোয় ফোন করে হাসপাতাল থেকে বলা হয় অক্সিজেনের ব্যবস্থা করতে। হন্যে হয়ে গোটা শহর খুঁজেও তাঁরা কোনও হদিশ পাননি। শেষ পর্যন্ত মঙ্গলবার সকালে অক্সিজেন পেলেও সিলিন্ডারের অভাবে বিদ্যাসাগর হাসাপাতালে তা পৌঁছনো সম্ভব হয়নি।
কিছুটা স্বস্তি! করোনায় দেশে দৈনিক সংক্রমণ ফের কমল
যমুনা নাথের এক আত্মীয়ের কথায়, ‘রাতভর অক্সিজেন খুঁজে পাইনি। আজ সকালে অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে যখন পেলাম, হাসপাতাল থেকে ফোন এল রোগী মারা গিয়েছে। চারিদিকে ঘুরে ঘুরে সল্টলেকে অক্সিজেন পেয়েছিলাম। তারপর বিদ্যাসাগর হাসপাতালে এসে খালি সিলিন্ডার চেয়েছিলাম। বললাম, খালিই দিন। ভর্তি করে দেব। গোটা হাসপাতাল ঘুরে পেলাম না। কিন্তু, তার আগেই সব শেষ।’
কয়েক মিনিট অক্সিজেন নেই, মৃত্যু ১১ Covid রোগীর
এদিকে, বিদ্যাসাগর স্টেট জেনারেল হাসপাতালের সুপারের দাবি, হাসপাতালে অক্সিজেন পর্যাপ্ত রয়েছে। তবে সিলিন্ডারের উপরে লাগানোর জন্য যে ফ্লো মিটার থাকে, যার ফলে বোঝা যায় অক্সিজেনের মাত্রা কমছে না বাড়ছে, সেই ফ্লো মিটার রয়েছে মাত্র একটাই। আর তাই অক্সিজেন দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।’ ফ্লো মিটারের ঘাটতি মঙ্গলবারের মধ্যেই পূরণ হবে বলে খবর। তবে এই উত্তরে আরও ক্ষুব্ধ হয়ে মৃতার আত্মীয়রা হাসাপাতালের বাইরে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। সূত্রের খবর, যমুনা নাথ ছাড়া আরও এক করোনা আক্রান্ত রোগীরও মৃত্যু হয়েছে এদিন। ফলে প্রশ্ন উঠেছে বিদ্যাসাগর হাসপাতালের ভূমিকা নিয়ে।

কলকাতার আরও খবরের জন্য ক্লিক করুন। প্রতি মুহূর্তে খবরের আপডেটের জন্য চোখ রাখুন এই সময় ডিজিটালে।






Source link