Naveen Patnaik: ‘ইয়াসে টাকা চেয়ে আর বোঝা বাড়াব না’, মোদী সরকারকে বার্তা নবীনের – odisha cm naveen patnaik says they do not need compensation for ias from central govt

Share Now





হাইলাইটস

  • ইয়াসে ক্ষতিপূরণ চাইলেন না ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক
  • নবীন বললেন, ‘আমাদের কাছে যা রসদ রয়েছে, তা দিয়েই পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করব’
  • মোদীর সঙ্গে বৈঠক করেন নবীন

ভুবনেশ্বর: তাঁর রাজ্যেই মাটি ছুঁয়েছিল সাইক্লোন ইয়াস। বুধবার সকাল ৯টা থেকে ঘণ্টাচারেকের সেই তাণ্ডব এবং তার আগে-পরে ২৪ ঘণ্টারও বেশি লাগাতার বৃষ্টিতে কার্যত বানভাসি চেহারা নেয় ওডিশার বিস্তীর্ণ উপকূলবর্তী এলাকা। জলমগ্ন অন্তত ১২৮টি উপকূলবর্তী গ্রামের জন্য সে দিনই এক সপ্তাহের সরকারি ত্রাণের ঘোষণা করেন তিনি। শুক্রবার খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এসেছিলেন পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে। তাঁর সঙ্গে বৈঠক করেন ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক। তবে জানিয়ে দিলেন, এখনই কেন্দ্রের তরফে ত্রাণের প্রয়োজন নেই তাঁর। মোদীর পশ্চিমবঙ্গের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার পরে নবীনের টুইট, ‘ইয়াসের জন্য ওডিশায় কেমন ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা দেখতে এসেছিলেন বলে প্রধানমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ। তবে করোনা-আবহে এমনিতেই কেন্দ্রের উপর অনেক বোঝা রয়েছে। তাই আমাদের রাজ্যে ক্ষতিপূরণ বা পুনর্বাসনের জন্য আলাদা করে অর্থসাহায্য চাইছি না। আমাদের কাছে যা রসদ রয়েছে, তা দিয়েই পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করব।’

কিছুই কি নেবেন না? পরের টুইটেই অবশ্য নবীন জানান, ‘প্রাকৃতিক মোকাবিলায় দীর্ঘকালীন পরিকাঠামো দরকার। সেই খাতে অবশ্যই কেন্দ্রের সাহায্য চেয়েছি। বিপর্যয়-প্রতিরোধী পরিকাঠামো তথা উপকূলীয় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আরও বাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়েছি।’ ইয়াসের মোকাবিলায় ল্যান্ডফলের আগেই ওডিশা, অন্ধ্রপ্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেনন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সেখানেই ওড়িশা ও অন্ধ্রপ্রদেশকে ৬০০ কোটি ও বাংলাকে ৪০০ কোটি অগ্রিম দেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন তিনি। কম বরাদ্দ নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিলেন মমতা। ওই আগাম বরাদ্দও নবীন ফেরাবেন কি না, তা অবশ্য নিশ্চিত নয়।

ওঁরা মৃত্যুঞ্জয়ী, কিন্তু এমন বিদায়?

তবে কেন্দ্রকে তাঁর এই ‘আর ত্রাণ চাই না’ বার্তাকে বিশেষ রাজনৈতিক সৌজন্য হিসেবেই দেখাতে চাইছে নবীনের মন্ত্রিসভা। রাজ্যের এক শীর্ষস্থানীয় আমলার কথায়, ‘কেন্দ্র তথা বিজেপির সরকারের নানাবিধ পদক্ষেপ বা সিদ্ধান্ত নিয়েই আপত্তি রয়েছে আমাদের মুখ্যমন্ত্রীর। কিন্তু দেশের সার্বিক স্বার্থে এমন দায়িত্বশীল আচরণ এর আগেও তিনি বহু বার করেছেন।’






Source link