Mohammad Shahabuddin: ‘সিওয়ানের সুলতান’ মহম্মদ শাহবুদ্দিনের প্রাণ কাড়ল করোনা – former rjd mp mohammad shahabuddin passes away due to covid related complications

Share Now





হাইলাইটস

  • শনিবার নয়াদিল্লির দীন দয়াল উপাধ্যায় হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে সে।
  • শাহবুদ্দিনের মৃত্যু ঘিরে এদিন সকাল থেকে ধোঁয়াশা তৈরি হয়।
  • প্রথমে শাহবুদ্দিনের মৃত্যুর খবর ভুয়ো বলে জানিয়েছিল তিহার জেল কর্তৃপক্ষ।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: প্রয়াত করোনায় আক্রান্ত গ্যাংস্টার তথা প্রাক্তন RJD সাংসদ মহম্মদ শাহবুদ্দিন (Mohammad Shahabuddin)। শনিবার নয়াদিল্লির দীন দয়াল উপাধ্যায় হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে সে। বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর। যাবজ্জীবন কারাবাসের সাজাপ্রাপ্ত বাহুবলি নেতা শাহবুদ্দিন নয়াদিল্লির তিহার জেলে বন্দি ছিল। গত ১৯ এপ্রিল সেখানেই করোনায় আক্রান্ত হয় সে।

এদিকে শাহবুদ্দিনের মৃত্যু ঘিরে এদিন সকাল থেকে ধোঁয়াশা তৈরি হয়। প্রথমে শাহবুদ্দিনের মৃত্যুর খবর ভুয়ো বলে জানিয়েছিল তিহার জেল কর্তৃপক্ষ। পরে অবশ্য দিল্লির কারা বিভাগের ডিজি সন্দীপ গোয়েল এই বাহুবলি নেতার মৃত্যুর কথা জানান। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই প্রাক্তন সাংসদের আইনজীবীদের পক্ষ থেকে দিল্লি হাইকোর্টে একটি আবেদন করা হয়েছিল। সেখানে বলা হয়, তিহার জেলে এক করোনা পজিটিভ বন্দির সঙ্গে একই সেলে রাখা হয়েছে তাকে। শুনানির পর দিল্লি হাইকোর্ট গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি নির্দেশও দেয়। কিন্তু, এর মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়ায় দীন দয়াল হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় তাকে। দু’দিন আগে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ভেন্টিলেশনে দেওয়া হয়েছিল।

প্রয়াত প্রাক্তন অ্যাটর্নি জেনারেল সোলি সোরাবজি

এক সময় বিহারের সিওয়ানের চার দফার সাংসদ মহম্মদ শাহবুদ্দিনের নাম শুনে বাঘে গোরুতে একঘাটে জল খেত। লোকমুখে বাহুবলি নেতা হয়ে উঠেছিলেন, সিওয়ানের সুলতান। তিন ডজনেরও বেশি মামলায় অভিযুক্ত শাহবুদ্দিন অবশ্য বেশ কয়েকটি মামলায় জামিনও পেয়েছিল সে। তবে কোনওবারই তা বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। ১১ বছরের কারাবাসের মেয়াদ শেষে ২০১৬ সালে মুক্ত হয় সে। যদিও আদালতের নির্দেশে ফের জেলবন্দি করা হয় তাকে। পরে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে তিহার জেলে স্থানান্তরিত করা হয় তাকে।

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।






Source link