Lalu Prasad Yadav: অবশেষে জামিন লালু প্রসাদ যাদবের – former bihar cm lalu prasad yadav granted bail by jharkhand high court in fodder scam case related to fraudulent withdrawal from dumka treasury

Share Now





হাইলাইটস

  • শেষ পর্যন্ত পশুখাদ্য মামলায় জামিন পেলেন বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব।
  • দুমকা ট্রেজারি মামলায় তাঁকে জামিন দিয়েছে ঝাড়খণ্ড হাইকোর্ট।
  • গত ১৯ ফেব্রুয়ারি লালুর জামিনের আর্জি খারিজ করে দিয়েছিল আদালত।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: শেষ পর্যন্ত পশুখাদ্য মামলায় জামিন পেলেন বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব। (Lalu Prasad Yadav)। দুমকা ট্রেজারি মামলায় তাঁকে জামিন দিয়েছে ঝাড়খণ্ড হাইকোর্ট। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি লালুর জামিনের আর্জি খারিজ করে দিয়েছিল আদালত। অবশেষে শনিবার এই মামলায় তাঁর জামিন মঞ্জুর করল আদালত।
তীব্র সমালোচনার মুখে কুম্ভমেলা নিয়ে বিশেষ আর্জি প্রধানমন্ত্রীর
উল্লেখ্য, ১৯৯১ সাল থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন বিহারের পশুপালন দফতরের মাধ্যমে ঝাড়খণ্ডের দুমকা ট্রেজারি থেকে ৩.১৩ কোটি টাকা গায়েব করে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে লালু প্রসাদ যাদবের বিরুদ্ধে। ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাস থেকেই জেলবন্দী বিহারের প্রাক্তন মুখ্য়মন্ত্রী তথা RJD প্রধান লালুপ্রসাদ। তবে জেলে থাকলেও শারীরিক অসুস্থতার জন্য তিনি ঝাড়খণ্ডের রাজেন্দ্র ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসেই তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। এরপর তাঁকে দিল্লিতে AIIMS-এ ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। লালুর অনুপস্থিতিতেই বিহারে গত বিধানসভা নির্বাচনে তাঁর পুত্র তেজস্বীর নেতৃত্বে লড়েছিল RJD। লালুপুত্র তেজস্বীর হাতেই RJD-র ব্যাটন ছিল। একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসেবে উঠে এলেও হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের মধ্য়ে দিয়ে জয় ছিনিয়ে নেয় নীতিশ-BJP জোট।
প্রয়াত প্রাক্তন CBI কর্তা রঞ্জিত সিনহা, সন্দেহে কোভিড
প্রসঙ্গত, পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির মোট চারটি মামলা রয়েছে লালু প্রসাদের নামে। যদিও আগেই তিনটি মামলায় জামিন পেয়ে গিয়েছেন তিনি। এদিন বিচারপতি অপরেশ কুমার সিং জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে জানান, জামিনের মেয়াদ চলাকালীন তিনি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরতে পারলেও দেশের বাইরে যেতে পারবেন না। ঠিকানা ও ফোন নম্বরও বদল করতে পারবেন না বলে নির্দেশ আদালতের।

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।






Source link