Lakshadweep: দেশদ্রোহে এ বার নাম লাক্ষাদ্বীপের সুলতানার – lakshadweep actress is accused for sedition case for criticizing government over the covid situtaion

Share Now





হাইলাইটস

  • দেশদ্রোহের মামলা এ বার লাক্ষাদ্বীপের অভিনেত্রী-পরিচালক তথা সমাজকর্মী আইশা সুলতানার বিরুদ্ধে।
  • কেন্দ্র প্রফুলকে লক্ষদ্বীপের মানুষের বিরুদ্ধে জৈব অস্ত্রের মতো ব্যবহার করছে। তাঁর এই মন্তব্যকে ‘দেশদ্রোহ’ বলে উল্লেখ করে কাভারাত্তি থানায় আইশার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন লক্ষদ্বীপের বিজেপি সভাপতি সি আব্দুল কাজের হাজি।
  • যথারীতি এ নিয়ে হইচই পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সিপিএমের থমাস আইজ্যাক থেকে শুরু করে কংগ্রেসের শশী থারুর- কেন্দ্রকে বিঁধেই শুক্রবার লাগাতার টুইট করেন।

তিরুঅনন্তপুরম: দেশদ্রোহের মামলা এ বার লাক্ষাদ্বীপ অভিনেত্রী-পরিচালক তথা সমাজকর্মী আইশা সুলতানার বিরুদ্ধে।

উন্নয়নের নামে দ্বীপপুঞ্জের প্রশাসক প্রফুল খোড়া প্যাটেল একের পর এক যা বিল এনেছেন, তা নিয়ে বিক্ষোভে ফুঁসছে লক্ষদ্বীপ। প্রশাসক প্রফুল কি লাক্ষাদ্বীপে করোনাও বাড়াতে চান- এমন প্রশ্নও উঠে গিয়েছে। কারণ একটা সময় পর্যন্ত কার্যত করোনাশূন্য ছিল লক্ষদ্বীপ। তার পরে হঠাৎ নির্দেশিকায় বদল আনেন প্রশাসক- বাইরে থেকে কেউ এলে ১৪ দিনের পরিবর্তে ৪৮ ঘণ্টা কোয়রান্টিনই যথেষ্ট। পরিণাম, এখন এই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে।

সেই প্রসঙ্গেই সম্প্রতি স্থানীয় একটি চ্যানেলের বিতর্কসভায় সুলতানা দাবি করেন, কেন্দ্র প্রফুলকে লাক্ষাদ্বীপ মানুষের বিরুদ্ধে জৈব অস্ত্রের মতো ব্যবহার করছে। তাঁর এই মন্তব্যকে ‘দেশদ্রোহ’ বলে উল্লেখ করে কাভারাত্তি থানায় আইশার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন লাক্ষাদ্বীপ বিজেপি সভাপতি সি আব্দুল কাজের হাজি। মামলা হয়েছে কেরালাতেও।

যথারীতি এ নিয়ে হইচই পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সিপিএমের থমাস আইজ্যাক থেকে শুরু করে কংগ্রেসের শশী থারুর- কেন্দ্রকে বিঁধেই শুক্রবার লাগাতার টুইট করেন। অবশ্য মামলা করে যে তাঁকে দমিয়ে রাখা যাবে না, এ দিনই তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন। তাঁর কথায়, ‘হ্যাঁ, আমি ‘জৈব অস্ত্র’-র কথা টিভি-ডিবেটে ব্যবহার করেছিলাম। কারণ আমার মনে হয়েছে, প্যাটেল ও তাঁর সিদ্ধান্তগুলি জৈব অস্ত্রের চেয়ে কম কিছু নয়। প্যাটেলের জন্যইলাক্ষাদ্বীপ আজ সংক্রমণের এই বাড়বৃদ্ধি। যা বলার আমি প্যাটেলকে বলেছি, কেন্দ্র বা দেশকে বলিনি। মামলা হয়েছে, হোক। তবু নিজের জন্মভূমির স্বার্থে আমি এ বার আরও সুর চড়াব।’

মৃত্যুর সংখ্যা চিন্তা বাড়াচ্ছে, নজরে এখন সেরো-সার্ভে
অবিলম্বে সুলতানার উপর থেকে দেশদ্রোহের মামলা খারিজের দাবি তুলেছেন শশী থারুর। তাঁর কথায়, ‘উস্কানি বা হিংসায় প্ররোচনা নয়, তা সত্ত্বেও সরকারের সমালোচনা মানেই কি তাহলে দেশদ্রোহ বলে ধরে নেওয়া হবে?’






Source link