Kangana Ranaut: The Dirty Picture: পছন্দ হয়নি তাই নাকোচ করেছিলাম বিদ্যা বালনের ডার্টি পিকচার, অকপট কঙ্গনা রানাওয়াত – kangana ranaut said she doesn’t regret turning down vidya balan’s the dirty picture that created history

Share Now





হাইলাইটস

  • ২০১১ সালে সাড়ম্বরে মুক্তি পেয়েছিল মিলান লুথরিয়া (Milan Luthria) পরিচালিত ছবি The Dirty Picture।
  • এই চরিত্রের জন্যে প্রথম পছন্দ মোটেই ছিলেন না বিদ্যা বালন (Vidya Balan)।
  • কঙ্গনা দাবি করেছেন The Dirty Picture-এ অভিনয়ের জন্যে প্রথমে নির্মাতারা তাঁর কাছেই গিয়েছিলেন।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি বিতর্কের মধ্যমণি চিরকালই। কঙ্গনা রনাওয়াতের (Kangana Ranaut) তির্যক মন্তব্যের শিকার হয়েছেন বলিউডের প্রায় প্রত্যেক অভিনেতা-অভিনেত্রীই। বেশিদিন চুপচাপ বসে থাকাও তাঁর ধাতে নেই। কয়েকদিনের মৌনব্রত ভঙ্গ করে তাই ফের তিনি তরজার আসরে। তবে এবার আর কাউকে বিঁধলেন না, বরং করলেন মুক্ত কন্ঠে প্রশংসা।

২০১১ সালে সাড়ম্বরে মুক্তি পেয়েছিল মিলান লুথরিয়া (Milan Luthria) পরিচালিত ছবি The Dirty Picture। বিদ্যা বালনের অভিনয় জীবনের এক মোড় ঘোরানো ছবি হিসেবে চিহ্নিত হয়েছিল দ্য ডার্টি পিকচার। একসময়ের ডাকসাইটে অভিনেত্রী সিল্ক স্মিতা (Silk Smitha)-র জীবন তুলে ধরা হয়েছিল এই ছবিতে। বিতর্কিত এই নায়িকার নাম ভূমিকায় অভিনয় করে সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন বিদ্যা বালন। জিতে নিয়েছিলেন শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর জাতীয় পুরস্কারও। কিন্তু জানলে অবাক হবেন, এই চরিত্রের জন্যে প্রথম পছন্দ মোটেই ছিলেন না বিদ্যা বালন (Vidya Balan)।

সম্প্রতি একটি সাক্ষাত্‍কারে কঙ্গনা (Kangana Ranaut) দাবি করেছেন The Dirty Picture-এ অভিনয়ের জন্যে প্রথমে নির্মাতারা তাঁর কাছেই গিয়েছিলেন। কিন্তু সেই ছবির চিত্রনাট্য পড়ে বিশেষ ভালো লাগেনি তাঁর। ঠিক সেই কারণেই এককথায় ফিরিয়ে দিয়েছিলেন পরিচালককে। হাত ঘুরে সেই ছবি যায় বিদ্যার কাছে। বাকিটা তো যাকে বলে… ইতিহাস!

আরও পড়ুন: অস্কার দৌড়ে বিদ্যার ‘নটখট’

গণিতের বড় বড় ফর্মূলা মনে রাখতে সুরের ছন্দ বাঁধলেন ‘শকুন্তলা’ বিদ্যা!
‘মাথামোটার দল উত্তেজনা ছড়িও না’, করোনা পরিস্থিতিতে কঙ্গনার নয়া টুইটে চাঞ্চল্য
লুকিয়ে ফোন করে অক্ষয়! কঙ্গনার বিস্ফোরক টুইট

দ্য ডার্টি পিকচারের অমন আকাশছোঁয়া সাফল্যের পর কি সামান্য আফসোস হয়েছিল ঝাঁসির রানির? উঁহু… প্রশ্নই ওঠে না। তবে নিজের চিরাচরিত ভাবমূর্তি ছেড়ে ছবিটির মুক্তকন্ঠে প্রশংসাও করলেন তিনি। শুধু ছবি নয়, খোদ বিদ্যা বালনকেও প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন তিনি। অকপট কঙ্গনা জানালেন, ‘ছবি ছাড়ার জন্যে ব্যক্তিগত কোনও আফসোস নেই আমার। আমি নাকোচ করলেও, পরবর্তী সময়ে এক অসাধারণ ছবি হয়ে উঠেছে দ্য ডার্টি পিকচার। আমার একবারের জন্যেও মনে হয় না, বিদ্যা যে অসাধারণ অভিনয় করেছেন, তাঁর থেকে আমি আরও বেশি কিছু করতে পারতাম। তবে হ্যাঁ, ছবিটির পোটেনশিয়াল বুঝতে পারিনি সেই সময়ে।’

এখানেই শেষ নয়। তাঁর মতে বলিউডের প্রথম সারির অভিনেত্রীদের তালিকায় নিজের নাম লিখিয়েছেন শুধুমাত্র অন্য ঘরানার ছক ভাঙা ছবি করে। এই সাফল্যের জন্যে তাঁকে রাজকুমার হিরানি, সঞ্জয় লীলা বনশালী, ধর্মা প্রোডাকশনস, যশ রাজের ছবি বা কোনও খানের শরণাপন্ন হতে হয়নি। যা সাফল্য অর্জন করেছেন, তা নিজের দমে করেছেন।

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন।






Source link