Jammu and kashmir: সর্বদল বৈঠকের আগেই পাকিস্তানের ‘ওয়ার্নিং’ – pm modi calls for all party meeting on kashmir issue

Share Now





হাইলাইটস

  • শুধুই ডিলিমিটেশন, নাকি পুনর্গঠনের দু’বছর পরে রাজ্যের মর্যাদাই ফিরে পাবে জম্মু-কাশ্মীর- উপত্যকার সব দলকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন বৈঠক ঘিরে তুঙ্গে সেই চর্চা।
  • জম্মু-কাশ্মীরকে কী ভাবে রাজ্যের তকমা ফিরিয়ে দেওয়া যায়, কয়েকমাস ধরেই তার কৌশল ঠিক করছেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল।
  • বৃহস্পতিবার উপত্যকার নেতা-নেত্রীদের সঙ্গে বসে সেই রূপরেখাই তুলে ধরবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

নয়াদিল্লি: শুধুই ডিলিমিটেশন, নাকি পুনর্গঠনের দু’বছর পরে রাজ্যের মর্যাদাই ফিরে পাবে জম্মু-কাশ্মীর- উপত্যকার সব দলকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন বৈঠক ঘিরে তুঙ্গে সেই চর্চা। সূত্রের খবর, জম্মু-কাশ্মীরকে কী ভাবে রাজ্যের তকমা ফিরিয়ে দেওয়া যায়, কয়েকমাস ধরেই তার কৌশল ঠিক করছেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। সম্প্রতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সঙ্গে এক দফা বৈঠকও হয়েছে তাঁর। শোনা যাচ্ছে, বৃহস্পতিবার উপত্যকার নেতা-নেত্রীদের সঙ্গে বসে সেই রূপরেখাই তুলে ধরবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অন্য একটি সূত্রের অবশ্য দাবি, রাজ্যের মর্যাদা ফেরানোর প্রশ্নই উঠছে না। এই বৈঠকে মূলত জম্মু-কাশ্মীরের ডিলিমিটেশন বা সীমানা নির্ধারণের বিষয়টিই আলোচনা হবে।

আদতে কী হয়, সে দিকেই নজর সবার। পাকিস্তান যেমন আগেভাগেই ‘ওয়ার্নিং’ দিয়ে রেখেছে। রবিবার পাক বিদেশ মন্ত্রকের জারি করা বিবৃতিতে মন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশি স্পষ্টতই হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘২০১৯-এর ৫ অগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা ও ক্ষমতায় হাত পড়েছিল। ভারতকে সাবধান করছি, তারা যেন আর কোনও অবৈধ পদক্ষেপ না-করে।’ কাশ্মীরের ডেমোগ্রাফি বদলানোর চেষ্টা চলছে বলে আগেই রাষ্ট্রপুঞ্জে ভারতের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে রেখেছে ইসলামাবাদ। এ দিন ফের সেই প্রসঙ্গ টেনে ভারতে সতর্ক করলেন পাক বিদেশমন্ত্রী।

বৈঠকে যা-ই হোক, উপত্যকায় স্বাভাবিক রাজনৈতিক প্রক্রিয়া ফিরিয়ে আনাটাই এই মুহূর্তে কেন্দ্রের কাছে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ, দীর্ঘ সময় পর্যন্ত নেতা-নেত্রীদের বন্দি রাখার ফলে উপত্যকা কার্যত থমকেই। এ দিকে একাংশের মনে ক্ষোভও তৈরি হয়েছে। সঙ্গে পাকিস্তানের তরফে উস্কানি তো আছেই। এই পরিস্থিতিতে সীমানা পুর্নবিন্যাস ও উপত্যকায় ভোট করানোই কেন্দ্রের অগ্রাধিকার বলে সূত্রের খবর।

কাশ্মীরে সেনার বড় সাফল্য, শীর্ষ কমান্ডার সহ নিকেশ ৩ লস্কর জঙ্গি
৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পরেও এখানে বেশ কিছু স্থানীয় স্তরে ভোট হয়েছে৷ কিন্তু পিডিপি নেত্রীর মেহবুবা মুফতির মতো উপত্যকার সব দলের নেতাদেরই মূল দাবি ছিল, রাজ্যের তকমা ফেরত পাওয়া। আপাতত সন্ধির পথে হেঁটেই কেন্দ্র সেই দাবি পূরণের পথে এগোচ্ছে বলে একটি সূত্রের দাবি। নজরে ভোটও। সীমানা পুনর্বিন্যাসের প্রক্রিয়া শেষ হলেই জম্মু কাশ্মীরে নির্বাচন হওয়ার কথা৷ সরকারি সূত্রের দাবি, বৃহস্পতিবারের বৈঠকে মোদী ডিলিমিটেশন এবং ভোট নিয়েও আশ্বস্ত করবেন মুফতিদের। গত বছর যে ডিলিমিটেশন কমিশন গঠন করা হয়েছিল, তারা রিপোর্ট দেওয়ার পরই কাশ্মীরে ভোটের প্রক্রিয়া শুরু করা সম্ভব বলে সূত্রের খবর।

Yoga Day 2021: যোগাসন করলেন রাষ্ট্রপতি, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরাও
রাজ্যের তকমা কি সত্যিই ফেরত পাবে জম্মু-কাশ্মীর- এমন চর্চা শুরু হলেও আগের মতো বিশেষ কোনও ক্ষমতা উপত্যকা ফেরত পাবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। পাশাপাশি, পুনর্গঠনের ফলে তৈরি হওয়া কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল লাদাখ নিয়ে কেন্দ্রের এখনই কোনও পরিকল্পনা নেই বলেই দাবি সরকারি সূত্রের।






Source link