Jagdeep Dhankhar: রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে এবার মুখ খুললেন রাজ্যপাল – jagdeep dhankhar comment on west bengal covid situation

Share Now





হাইলাইটস

  • করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।
  • শনিবার কলকাতার কমান্ড হাসপাতালে টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেন তিনি।
  • টিকা নেওয়ার পর রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খুলেছেন রাজ্যপাল।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতিতে টিকাকরণে জোর দিচ্ছে কেন্দ্র। এবার সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। শনিবার কলকাতার কমান্ড হাসপাতালে টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেন তিনি। টিকা নেওয়ার পর রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খুলেছেন রাজ্যপাল। তিনি বলেন, এই পরিস্থিতিতে কোনও ভেদাভেদ না রেখে কাজ করা উচিৎ। রাজ্য সররকারের উচিৎ কেন্দ্রের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করা।

সম্প্রতি সময়ে কেন্দ্র সরকারকে কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে একাধিকবার তোপ দেগেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টিকার দামে বৈষম্য থেকে শুরু করে অক্সিজেনের অভাব, একাধিক ইস্যুতে মোদী সরকারকে নিশানা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে রাজ্য সরকারকে কেন্দ্র সরকারের সঙ্গে যৌথভাবে রাজ্যকে কাজ করতে বলা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে অভিজ্ঞমহল। এদিন রাজ্যপাল বলেন, বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে নেতিবাচক ভাবনা চিন্তাকে প্রশয় দেওয়া চলবে না। একসঙ্গে লড়াই করতে হবে। এদিকে দেশজুড়ে অক্সিজেন সংকট দেখা গেছে বিগত কয়েকদিন ধরেই। এবার এই সমস্যা প্রসঙ্গেও মুখ খুললেন ধনকড়। তিনি জানান, খুব তাড়াতাড়ি এই সমস্যার সমাধান হবে।

দেশে করোনা ভাইরাসের বাড়বাড়ন্ত ঠেকাতে টিকাকরণে জোর দিচ্ছে কেন্দ্র সরকার। আজ থেকে ছয় সপ্তাহ আগে করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছিলেন রাজ্যপাল। টিকা নেওয়ার পর তিনি জানান, ‘সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছি। কোনও সমস্যা হচ্ছে না।’

‘ভিরাফিন’-এর হাত ধরেই করোনা মুক্তি! চিকিৎসকরা কী বলছেন?
করোনা রুখতে সকলকেই টিকা নিতে আহ্বান জানিয়েছেন রাজ্যপাল। প্রসঙ্গত, বিগত ২৪ ঘণ্টায় দেশের নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৭৮৬ জন, মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৬২৪ জনের। ২০২০ সালেও একদিনে করোনা এত মানুষের প্রাণ কাড়েনি। পরিস্থিতি জটিল থেকে জটিলতর হচ্ছে, মতামত বিশেষজ্ঞদের।

‘কাজের লোক’ ববিদার পথে চ্যালেঞ্জ জমা জল
এই মুহূর্তে দেশে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ লাখ ৫২ হাজার ৯৪০ জন। সংক্রমণ বাড়ছে হুহু করে। এদিকে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়তে থাকায় হাসপাতালগুলিতে জায়গা পাচ্ছেন না বহু করোনা রোগী। সবমিলিয়ে পরিস্থিতি ভয়াবহ। আশার কথা, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ২ লাখ ১৯ হাজার ৮৩৮ জন। দেশে এখনও পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৬৬ লাখ ১০ হাজার ৪৮১। এখনও পর্যন্ত করোনা দেশে প্রাণ কেড়েছে ১ লাখ ৮৯ হাজার ৫৪৪ জনের। এখনও পর্যন্ত দেশে টিকা দেওয়া হয়েছে ১৩ কোটি ৮৩ লাখ ৭৯ হাজার ৮৩২ জনকে। মার্কিন গবেষণায় জানা যাচ্ছে, মে মাসে ভারতে আরও ভয়ংকর চেহারা নিতে পারে করোনা (Covid 19)।

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।






Source link