india pakistan news: ‘অতীত ভুলে এগিয়ে আসুন’, ভারতকে মৈত্রীর বার্তা পাক সেনাপ্রধানের – pakistan army chief general qamar javed bajwa urges india to bury past and move forward

Share Now





হাইলাইটস

  • অতীত ভুলে সুসম্পর্ক তৈরিতে এগিয়ে আসার বার্তা দিলেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া
  • তাঁর মতে, দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক থিতু হলেই দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়ায় তার ভালো প্রভাব পড়বে
  • প্রসঙ্গত, কাশ্মীর ইস্যুকে কেন্দ্র করে ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক বারবার তিক্ত হয়েছে

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সুসম্পর্কের সেতু তৈরিতে উদ্যোগী হল ইসলামাবাদ। অতীত ভুলে সুসম্পর্ক তৈরিতে এগিয়ে আসার বার্তা দিলেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। তাঁর মতে, দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক থিতু হলেই দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়ায় তার ভালো প্রভাব পড়বে। সেই সঙ্গে পূর্ব ও পশ্চিম এশিয়ার সঙ্গে যোগাযোগেও ইতিবাচক বাতাবরণ তৈরি হবে।

এই প্রসঙ্গে পাক সেনাপ্রধান বলেছেন, ‘ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সংঘাতের মূল বিষয় হল কাশ্মীর। শান্তিপূর্ণ ভাবে কাশ্মীর সমস্যা সমাধান না হলে উপমহাদেশে শান্তি প্রতিষ্ঠার বিষয়ে সংশয় থেকে যাবে।’ উল্লেখ্য, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সুসম্পর্ক প্রতিষ্ঠায় জোর দেওয়ার বার্তা দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সম্প্রতি ‘ইসলামাবাদ সিকিওরিটি ডায়লগ’-এ পাক প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘ক্ষমতায় আসার পর থেকে ভারতের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করছি। তবে ভারতকেই প্রথমে এগিয়ে আসতে হবে এ ব্যাপারে।’

প্রসঙ্গত, কাশ্মীর ইস্যুকে কেন্দ্র করে ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক বারবার তিক্ত হয়েছে। ২০১৯ সালে পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর দু’দেশের সম্পর্ক কার্যত তলানিতে পৌঁছয়। পুলওয়ামা হামলার পর বালাকোটে এয়ার স্ট্রাইক করে ভারত। সেসময়ই ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে আটক করে পাকিস্তান। টালবাহানার পর অবশ্য অভিনন্দনকে ভারতে ফেরায় ইসলামাবাদ। এই ঘটনাপ্রবাহে দু’দেশের সম্পর্ক আরও তিক্ত হয়। এরপর জম্মু-কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদ নিয়ে নয়াদিল্লির বিরুদ্ধে সুর চড়ায় ইমরান খান সরকার। এমনকী, এ নিয়ে রাষ্ট্রসংঘেও দরবার করে তারা। এটা অভ্যন্তরীণ ইস্যু বলে পালটা সরব হয় ভারত। অন্যদিকে, সন্ত্রাসবাদের আঁতুরঘর পাকিস্তান, এই দাবি সামনে রেখেই আন্তর্জাতিক মহলে সোচ্চার হয় নয়াদিল্লি। সম্প্রতি টুলকিট মামলায় পরিবেশকর্মী দিশা রবির গ্রেফতারি নিয়ে মুখ খোলে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ। পাকিস্তানের শাসকদলের পক্ষ থেকে টুইটারে লেখা হয়, ‘মোদী/RSS-এর আমলের ভারতে সকলের কন্ঠরোধ করা হচ্ছে…।’

এপ্রিলের শেষেই ভারতে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন
তবে, তিক্ততাকে দূরে সরিয়ে পড়শি দেশের প্রতি সৌজন্যের হাত বাড়ায় ভারত। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের (Imran Khan) বিমানকে ভারতীয় আকাশসীমায় ঢোকার অনুমতি দেয় নয়াদিল্লি। শ্রীলঙ্কা যাওয়ার পথে ইমরানকে ভারতীয় আকাশপথে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয় বলে জানা যায়।

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।






Source link