Election Commission: মাদ্রাজ হাইকোর্টের ‘খুনের মামলা’ মন্তব্যের বিরোধিতায় সুপ্রিম কোর্টে কমিশন – election commission moves supreme court against madras high court murder charges remark

Share Now





হাইলাইটস

  • সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল নির্বাচন কমিশন
  • করোনা আবহে ভোট প্রক্রিয়া করা নিয়ে কমিশনকে তুলোধনা করে মাদ্রাজ হাইকোর্ট বলেছিল, কমিশনের আধিকারিকের বিরুদ্ধে খুনের মামলা করা উচিত
  • মাদ্রাজ হাইকোর্টের সেই মন্তব্যের বিরুদ্ধে এবার দেশের শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হল কমিশন

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: ফল ঘোষণার আগের দিন নয়া মোড়। এবার সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল নির্বাচন কমিশন (Election Commission)। সম্প্রতি করোনা আবহে ভোট প্রক্রিয়া করা নিয়ে কমিশনকে তুলোধনা করে মাদ্রাজ হাইকোর্ট বলেছিল, কমিশনের আধিকারিকের বিরুদ্ধে খুনের মামলা করা উচিত। মাদ্রাজ হাইকোর্টের সেই মন্তব্যের বিরুদ্ধে এবার দেশের শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হল কমিশন। কমিশনের এই পদক্ষেপে নয়া মাত্রা যোগ করল বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ।

উল্লেখ্য, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশজুড়ে থরহরি কম্প। করোনা সংক্রমণের জন্য নির্বাচন কমিশনকেই দায়ী করে মাদ্রাজ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, ‘আপনাদের অফিসারদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করা উচিত।’ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিচারপতি সেন্থিলকুমার রামামূর্তির বেঞ্চ জানায়,’ দেশের এই করোনা পরিস্থিতির জন্য শুধু নির্বাচন কমিশন দায়ী। করোনা সম্পর্কিত বিধি উড়িয়ে যখন প্রচার করছিলেন রাজনৈতিক নেতারা, তখন তাঁদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করেনি নির্বাচন কমিশন।’ কমিশনের আধিকারিকদের তীব্র কটাক্ষের সুরে বিচারপতিরা প্রশ্ন তোলেন, ‘ যখন এভাবে যাবতীয় সামাজিক দূরত্ববিধি উড়িয়ে প্রচার চালানো হচ্ছিল, তখন কি আপনারা অন্য গ্রহে ছিলেন?’ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির এ হেন মন্তব্যে তোলপাড় পড়ে যায় গোটা দেশে।

এরপর হাইকোর্টে এ প্রসঙ্গে কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, আদালতের কোনও পর্যবেক্ষণ যেন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত না হয়, তা হলে, কমিশনের ভাবমূর্তি কালিমালিপ্ত হচ্ছে। নিজেদের আবেদনে নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, বিচারপতিদের মৌখিক বিবৃতি যাতে কোনওভাবেই গণমাধ্যমে প্রকাশিত বা প্রচারিত না হয়।

কোভিডে মৃত স্বামী, কমিশনের বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা TMC প্রার্থীর স্ত্রীয়ের

এদিকে, মাদ্রাজ হাইকোর্টের মন্তব্যের পরই কার্যত নজিরবিহীন ভাবে কমিশনের বিরুদ্ধে দায়ের হয় অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা। উপ নির্বাচন কমিশন সুদীপ জৈন সহ নির্বাচন কমিশনের আধিকারিকদের কাজল সিনহাকে অনিচ্ছাকৃতভাবে খুনের জন্য দায়ী করে খড়দহ থানায় মামলা দায়ের করলেন মৃতের স্ত্রী। ২৫ এপ্রিল মৃত্যু হয় করোনায় আক্রান্ত খড়দার তৃণমূল প্রার্থী কাজল সিনহার।

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।






Source link