double mask: Covid রুখতে ডাবল মাস্ক কীভাবে পরবেন? নয়া নির্দেশিকা কেন্দ্রের – covid 19 how to wear double mask centre releases dos and donts

Share Now





হাইলাইটস

  • কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা করতে হিমশিম খাচ্ছে সরকার
  • করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সংক্রমণের তীব্রতা এতটাই বেশি যে তাতে ডাবল মাস্ক (Mask) পরার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা
  • ডাবল মাস্ক কীভাবে পরবেন? এ নিয়ে এবার কেন্দ্রের পক্ষ থেকে পরামর্শ দেওয়া হল

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Covid 19) সুনামিতে দেশজুড়ে বেলাগাম সংক্রমণ। যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে উদ্বেগ বাড়ছে। সংক্রমণের সঙ্গে মৃত্যুর হারও চিন্তা বাড়াচ্ছে। কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা করতে হিমশিম খাচ্ছে সরকার। এই পরিস্থিতিতে প্রথম থেকেই মাস্ক পরা নিয়ে সচেতনতার বার্তা দিচ্ছে সরকার। তবে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সংক্রমণের তীব্রতা এতটাই বেশি যে তাতে ডাবল মাস্ক (Mask) পরার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু, ডাবল মাস্ক কীভাবে পরবেন? এ নিয়ে এবার কেন্দ্রের পক্ষ থেকে পরামর্শ দেওয়া হল।

মাস্ক পরার ক্ষেত্রে কী কী মনে রাখতে হবে?

* ডাবল মাস্ক পরলে, একটা অবশ্যই সার্জিক্যাল মাস্ক পরতে হবে। সঙ্গে দুই বা ত্রিস্তরীয় কাপড়ের মাস্ক পরুন।

* নাক-মুঢ ঢেকে শক্ত করে মাস্কটি পরতে হবে।

* তবে খেয়াল রাখতে হবে মাস্ক পরার পর শ্বাসপ্রশ্বাসে যেন কোনও সমস্যা না হয়।

* কাপড়ের মাস্ক নিয়মিত পরিষ্কার করুন।

*কখনই একই ধরনের দুটো মাস্ক পরবেন না।

*পরপর দু’দিন একই মাস্ক পরবেন না।

বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা যেভাবে রূপ বদলেছে, তাতে মারণ ভাইরাসকে রুখতে জোড়া মাস্ক পরা অত্যন্ত জরুরি। ঠিকমতো মাস্ক পরে বাইরে বেরোলে, করোনা সংক্রমণ অনেকটাই রোখা যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

সাবধান! দেশে আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ
বায়ুতে ভেসে থাকা সূক্ষ্মাতিসূক্ষ্ম কণার মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা সংক্রমণ (Covid19)। সে কথা মেনে নিয়ে শুক্রবার তাদের নির্দেশিকা বদল করেছে মার্কিন সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (CDC)। সেই সঙ্গে মার্কিন সংগঠনটি মেনে নিল, আবদ্ধ জায়গায় সংক্রামিত ব্যক্তির নিঃশ্বাসের সঙ্গে নিঃসৃত সূক্ষ্ম কণা বায়ুবাহিত হয়ে ছ’ফুটেরও বেশি দূর পর্যন্ত পৌঁছে যেতে পারে, আর সে ক্ষেত্রে বায়ুবাহিত সংক্রমণের সম্ভাবনা থেকেই যায়। যা রোখার একমাত্র উপায় মাস্কের আবশ্যিক ব্যবহার।

মাইক্রোবায়োলজি বিশেষজ্ঞ সৌগত ঘোষ বলেন, ‘আদতে সংক্রমণটা ছড়ায় ড্রপলেটের মধ্যে দিয়েই। কিন্তু বদ্ধ জায়গায়, কিছু ড্রপলেট হাওয়ায় দীর্ঘক্ষণ ভেসে থাকে বলে করোনা বায়ুবাহিত সংক্রমণের মতো আচরণ করে মাত্র। রক্ষাকবচ হিসেবে তাই মাস্কের বিকল্প নেই।’ একমত ভাইরোলজিস্ট সিদ্ধার্থ জোয়ারদার। তিনি বলেন, ‘সে জন্যই বরাবর বলা হয়, যেখানে অনেকে আছেন, সেই জায়গাটি অন্তত করোনার ঝুঁকির নিরিখে বাতানুকূল হওয়ার চেয়ে খোলামেলা হওয়াই ভালো। তাই অফিসের মধ্যে মাস্ক খোলা ট্রেনে-বাসে মাস্ক খোলার মতোই বিপজ্জনক।’






Source link