covid19 helpline: কোভিড সংকটে বাংলার সহ-নাগরিকদের পাশে সৃজিত-স্বস্তিকা-পরমব্রত – bengali celebs srijit mukherjee, swastika mukherjee, abir chatterjee, parambrata chatterjee join hands helping covid patients and families in crisis

Share Now





এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার দ্বিতীয় ঢেউ-এর দাপটে বেসামাল পরিস্থিতি গোটা দেশ জুড়ে। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ঢলে পড়ছেন মৃত্যুর কোলে। আক্রান্ত হচ্ছে লাখে লাখে। চারিদিকে হাহাকার অক্সিজেন থেকে শুরু করে হাসপাতালে শয্যা এবং প্রাণদায়ী ওষুধেরও। মানুষ দিশাহারা। এমনই সময়ে বাংলার মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন বাংলার চলচ্চিত্র তারকারা। স্বেচ্ছাসেবীদের পাশাপাশি তাঁরাও সাধ্যমতো কাজ করে যাচ্ছেন এই দুঃসময়ে যদি কোনও সাহায্য করা যায়।

সেই তালিকায় নাম রয়েছে পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় (Srijit Mukherji), আবির চট্টোপাধ্যায় (Abir Chatterjee), পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় (Parambrata Chatterjee), স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় (Swastika Mukherjee), সাংসদ মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty), বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty), অনুপম রায় (Anupam Roy), ঋতব্রত মুখোপাধ্যায় (Rwitobrata Mukherjee), বিরসা দাশগুপ্ত (Birsa Dasgupta) এবং অন্যান্যরা। কোভিড আক্রান্ত এবং তাঁদের পরিবারের দিকে এঁরা বাড়িয়ে দিয়েছেন সাহায্যের হাত।

না, শুধুমাত্র করোনা ত্রাণ তহবিলে অর্থ দান করেই বসে থাকেননি এঁরা। বরং প্রতি মুহূর্তে সজাগ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে শেয়ার করে চলেছেন বিভিন্ন হেল্প লাইন নম্বর। প্রয়োজনে যোগাযোগ করিয়ে দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবীদের সঙ্গে যাতে সময়মতো অক্সিজেন, হাসপাতালের বেড অথবা আইসোলেশনে থাকার সময়ে খাবার পান রোগী বা তাঁর পরিবার। শুধুমাত্র কলকাতা নয়, শহরের বাইরেও নিরুপায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এঁরা। প্রত্যেকেরই সোশ্যাল মিডিয়া পেজে এখন শুধুই করোনা হেল্পলাইন নম্বরের তালিকা।

আরও পড়ুন: ‘বাংলায় এবার হিংসা বন্ধ হোক’, সোশ্যাল মিডিয়ায় গর্জে উঠলেন অপর্ণা-সৃজিতরা

ফের করোনার থাবা বলিউডে, পরিবার সহ আক্রান্ত দীপিকা পাড়ুকোন

এখন বাংলা ছবি তারকা তৈরি করে নাকি: চিরঞ্জিৎ

পয়লা দানেই বাজি জিতে বিধায়ক হলেন ৭ তারকা

ETimes-কে দেওয়া একটি সাক্ষাত্‍কারে পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ‘শুধু আমি না, অনেকেই এই কাজে এগিয়ে এসেছে স্বতঃস্ফূর্তভাবে। পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, বিরসা দাশগুপ্ত, আবির চট্টোপাধ্যায়, ঋতব্রত মুখোপাধ্যায়, রূপা ভট্টাচার্য এবং মধুরিমা বসাকও লাগাতার কাজ করে যাচ্ছেন। এঁরা ছাড়াও রয়েছেন তনুময় নস্কর, গার্গী ভট্টাচার্য, অভিরূপ সেন, শ্রেয়সী দস্তিদার, পলাশ হক এভং শুভম দত্ত। আমাদের সহ নাগরিকদের জন্যে এটা করা আমাদের কর্তব্য।’

একই সঙ্গে তিনি সেই সব মানুষের কাছে আন্তরিক আবেদন জানিয়েছেন যাঁদের সোশ্যাল মিডিয়ায় লাখ লাখ অনুগামী রয়েছেন। একটাই অনুরোধ, প্রয়োজনীয় তথ্য যতটা সম্ভব শেয়ার করুন তাঁরা, যাতে তা পুরনো হয়ে যাওয়ার আগেই পৌঁছে যেতে পারে সেই সব মানুষের কাছে যাঁরা দিশাহারার মতো এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে ছুটে বেড়াচ্ছেন।

এগিয়ে এসেছেন পরিচালক তথা চিকিত্‍সক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়। তিনি জানান, ‘সৃজিত ভীষণ পরিশ্রম করছে। আমার নম্বরও ফেসবুক প্রোফাইলে শেয়ার করা আছে। একের পর এক ফোন আসছে। আমিও রাস্তায় নেমে মাস্ক বিলি করছি, মানুষের অক্সিজেন স্যাচুরেশন মাপছি।’

মিমি চক্রবর্তীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘আমরা যথা সাধ্য চেষ্টা করছি। তবে কুর্নিশ জানাই তাঁদের যাঁরা পথে নেমে ২৪ ঘন্টা মানুষের পাশে থাকছেন, তাঁদের প্রাণ বাঁচানোর অক্লান্ত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। আমি বিশ্বাস করি এর থেকে আমরা বেরিয়ে আসবই।’
টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন।







Source link