COVID 19 India: দেশে কবে কমবে করোনার দাপট? জানালেন বিজ্ঞানীরা – covid 19 india update active cases may peak by may 15 and decline by end of the month says iit scientists

Share Now





হাইলাইটস

  • রোজই সংক্রমণের সুনামিতে নয়া রেকর্ড তৈরি হচ্ছে গোটা দেশে
  • এই আবহে অশনি সংকেত শোনালেন বিজ্ঞানীরা
  • IIT বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন, দেশে ১১ থেকে ১৫ মে-র মধ্যে সর্বোচ্চ সংক্রমণ হতে পারে

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশে কার্যত ত্রাহি ত্রাহি রব!করোনা ঝড়ে রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছে গোটা দেশ। রোজই সংক্রমণের সুনামিতে নয়া রেকর্ড তৈরি হচ্ছে গোটা দেশে। এই আবহে অশনি সংকেত শোনালেন বিজ্ঞানীরা। IIT বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন, দেশে ১১ থেকে ১৫ মে-র মধ্যে সর্বোচ্চ সংক্রমণ হতে পারে। ওই সময় দেশে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ছুঁতে পারে ৩৩-৩৫ লাখ। তবে মে মাসের শেষে নাটকীয়ভাবে কমতে পারে করোনার দাপট, গাণিতিক মডেল তৈরি করে এমন তথ্যই দিয়েছেন ওই বিজ্ঞানীরা।

এই প্রসঙ্গে IIT কানপুরের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়রের অধ্যাপক মণীন্দ্র আগরওয়াল বলেছেন, ‘আমরা দেখেছি যে, ১১-১৫ মে’র মধ্যে ভারতে করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা শিখরে পৌঁছতে পারে। ৩৩-৩৫ লাখ ছুঁতে পারে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা। তবে দ্রুতহারে কমবে। মে মাসের শেষে নাটকীয়ভাবে কমতে পারে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা।’ ই মডেলে বলা হয়েছে, হরিয়ানা, দিল্লি, রাজস্থান, তেলঙ্গানায় আগামী ২৫ থেকে ৩০ এপ্রিল করোনা সংক্রমণ শীর্ষে পৌঁছতে পারে।

কোভিডের দাপটে থরহরি কম্প দেশ। বৃহস্পতিবারই ভারতে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা তিন লাখ পেরিয়ে গিয়েছিল। শুক্রবার সাম্প্রতিক অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়ে সাড়ে তিন লাখ ছুঁইছুঁই দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা তিন লাখ ৩২ হাজার ৭৩০। মারা গিয়েছেন দু’ হাজার ২৬৩ জন। বর্তমানে সারা দেশে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৪ লাখ ২৮ হাজার ৬১৬। সর্বমোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এক কোটি ৬২ লাখ ৬৩ হাজার ৬৯৫ জন। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এক লাখ ৯৩ হাজার ২৭৯ জন।

ভ্যাকসিন এলেও অতিমারীকে পুরোপুরি রোখা যাচ্ছে না। এই পরিস্থিতিতে কবে বিদায় নেবে এই মারণ ভাইরাস? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে মরিয়া সকলে। তবে আশার আলো দেখাতে পারল না বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। এই অতিমারী পরিস্থিতির অবসান এখনই ঘটছে না। অনেক দিন ধরেই এই পরিস্থিতির সঙ্গে যুঝতে হবে বিশ্ববাসীকে। এমন সতর্কবাণীই শুনিয়েছেন হু প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রিয়েসাস। সাংবাদিক বৈঠকে হু প্রধান বলেছিলেন, ‘জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে গোটা দুনিয়ায় টানা ৬ সপ্তাহ সংক্রমণের হার কমেছে। এখন আমরা সাত সপ্তাহ ধরে ফের সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত দেখছি। গত চার সপ্তাহ ধরে টানা বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও।’

তিনি আরও বলেছিলেন, এশিয়া ও মধ্য প্রাচ্যের দেশগুলিতে সংক্রমণের প্রকোপ বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে সকলকে মাস্ক পরা, দুরত্ববিধি বজায় রাখার মতো কোভিড সুরক্ষাবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘অতিমারী অনেক দিন ধরে চলবে। কিন্তু, আমাদের অনেক আশা রয়েছে। কারণ, প্রথম দু’মাসে সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার অনেক কমেছে। এতেই স্পষ্ট যে, এই ভাইরাসকে রোখা সম্ভব। আমরা অতিমারী পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে পারি।’

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।






Source link