Baba Ramdev: ‘ঠিক করে শ্বাস নিতে জানে না আর এদিকে বলে অক্সিজেন সঙ্কট!’ করোনা রোগীদের নিয়ে রামদেবের মন্তব্যে দায়ের অভিযোগ – ima vp lodges complaint against baba ramdev for mocking covid patients and doctors

Share Now





এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: তুমুল বিতর্ক যোগগুরু রামদেবের মন্তব্যে। করোনা রোগী ও চিকিৎসকদের নিয়ে রামদেবের করা বিদ্রুপে নেটিজেনদের একাংশের মতোই ক্ষুব্ধ ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ডাঃ নভোজ্যোত সিং। যোগগুরু নামে সরাররি পুলিশে দায়ের অভিযোগ। কিন্তু কী এমন করেছিলেন বাবা রামদেব?

সম্প্রতি নেট পাড়ায় ভাইরাল বাবা রামদেবের এক ভিডিয়ো। যাতে করোনা রোগী ও চিকিৎসকদের নিয়ে করা মন্তব্য তীব্র অবমাননাকর বলে অভিযোগ। ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে করোনা রোগীদের নিয়ে ব্যঙ্গ করছেন রামদেব। তিনি বলেন, ‘করোনা রোগীরা নিজেরা ঠিক করে শ্বাস নিতে জানেন না এদিকে উল্টে অক্সিজেন সঙ্কট বলে নেগেটিভি ছড়াচ্ছেন।’ রামদেবের এই মন্তব্যেই তীব্র ক্ষিপ্ত নেটিজেনরা। চূড়ান্ত লজ্জাজনক বলে মন্তব্য করছেন চিকিৎসক থেকে সাধারণ মানুষ। তাঁর এই মন্তব্যের কারণেই ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ডাঃ নভোজ্যোত সিং শনিবার সরাসরি পুলিশে অভিযোগ জানিয়েছেন। তাঁর দাবি, করোনায় দিনরাত এক করে প্রাণপণে যারা চিকিৎসা করে চলেছেন তাদের নিয়ে অপমানজনক মন্তব্য করেছেন রামদেব।

এখানেই শেষ নয়, ভিডিয়োটিতে বাবা রামদেবকে বলতে শোনা যাচ্ছে, করোনা হলে হাসপাতালে না গিয়ে তাঁর নির্দেশ অনুসরণ করলেই সুস্থ হয়ে যাবে কোভিড রোগী। এমনকী তিনি এও বলেন, অক্সিজেন লেভেল কম হলে অনুলোম বিলোম প্রাণায়ম এবং কপালভাতি প্রাণায়ম করলেই মিটে যাবে সমস্যা। একইসঙ্গে রামদেবের বিস্ফোরক উক্তি, ভারত সরকারের দেওয়া নির্দেশিকা না মেনে যোগগুরুর দেখানো পথে চললেই খতম হবে করোনা। রামদেবের মতে, সরকার রোগীদের হাসপাতালে পাঠিয়ে আসলে মৃত্যুশয্যায় তুলে দিচ্ছেন। কারণ সেখানে কোনও চিকিৎসা হয় না।

এরই তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে ডাঃ দাহিয়া বলেন, যোগগুরুর বিরুদ্ধে ক্রিমিনাল কেস দায়ের করে উচ্চপর্যায়ের তদন্ত হওয়া দরকার। করোনা পরিস্থিতিতে সরকারি নির্দেশিকা না মেনে প্যানিক সৃষ্টি করছেন যোগগুরু। বিভ্রান্ত করছেন জনসাধারণকে। এই প্রথম নয়, করোনিল নিয়েও বিপুল বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন যোগগুরু। পতঞ্জলির আয়ুর্বেদিক ওষুধ করোনিলে সম্পূর্ণ সেরে যাবে করোনা। রামদেবের এই দাবির কারণে চিকিৎসক মহলে তৈরি হয় দ্বন্দ্ব। পরে আইনি নোটিশে করোনিল নিয়ে নিজের বক্তব্য সামান্য বদলে দেন রামদেব।






Source link