anushka sharma: স্পয়েলড স্পোর্টস বৃষ্টি, কোহলিদের জন্য প্রার্থনায় অনুষ্কা – anushka sharma wants rain to go away as virat kohli’s team india gear up to take on nz in wtc final

Share Now





এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: বহু প্রতীক্ষিত বাইশ গজের যুদ্ধে ভিলেন বৃষ্টি। সাউদাম্পটনের খারাপ আবহাওয়ার জেরে প্রথম বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলা শুরুই করা গেল না। আইপিএল মাঝপথে স্থগিত হওয়ার পর মাসখানেকেরও বেশি সময় বাইশ গজে কোহলি ব্রিগেডের ম্যাজিক দেখার থেকে বঞ্চিত অনুষ্কা সহ গোটা দেশ। তার উপর বহুদিন বাদে টেস্ট খেলতে নামছে ভারত, বিপরীতে কেন উইলিয়ামস ব্রিগেড।

সাউদাম্পটনের (Southampton) বাওল স্টেডিয়ামে ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড (India and New Zealand ) ম্যাচ। এত সব আয়োজন পণ্ড করতে সাউদাম্পটনের আকাশে সৈন্য-সামন্ত নিয়ে হাজির বরুণ দেব। নিউজিল্যান্ড-ভারত একে অপরের মুখোমুখি হওয়ার আগেই রাস্তা রুখেছে বৃষ্টি। তাই স্পয়েল স্পোর্টস বৃষ্টির কাছে প্রার্থনা অনুষ্কার। ছোটদের জনপ্রিয় ছড়ার দুই কলি তাই ভেসে উঠল বিরাট ঘরণীর ইনস্টা স্ট্যাটাসে। আবহাওয়ার বর্তমান পরিস্থিতিতে ম্যাচ শুরু হওয়া নিয়ে শঙ্কা তাই বৃষ্টির কাছে বিদায় নেওয়ার অনুরোধ রেখেছেন অভিনেত্রী। অনুষ্কার পোস্টে লেখা- রেইন রেইন গো অ্যাওয়ে। কাম এগেন আফটার ৫ ডেজ।

WTC Final: ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি, পণ্ড প্রথম সেশনের খেলা

৬ মাসের খুদে ভামিকাকে নিয়ে অনুষ্কা এই মূহূর্তে ইংল্যান্ডে বিরাটের সঙ্গেই রয়েছেন। সাউদাম্পটনের আবহাওয়া দেখে অনুষ্কার মতোই হতাশ ক্রিকেটপ্রেমীরাও। বৃষ্টির কাছে সবার একই আর্জি- এখন যাও, দরকার পড়লে পাঁচদিন বাদে এস।

বৃষ্টিতে WTC Final ভেস্তে গেলে কী হবে?

বাইশ গজে বল গড়ানোর আগেই আবহাওয়ার বাউন্সারে কাত ভারত-নিউজিল্যান্ড। ঐতিহাসিক ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে-র ফাইনালের ( WTC final) প্রথম দিনেই বৃষ্টির ভ্রূকুটি৷ সাউদাম্পটনের স্থানীয় আবহাওয়া দফতর, দিনভর বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সতর্কতা জারি করেছে। সকাল থেকে আবহাওয়ার অবস্থা দেখে দর্শকদের মনে এখন একটাই আশঙ্কা ম্যাচ বোধহয় গেল ভেস্তে।

সাউদাম্পটনের (Southampton) বাওল স্টেডিয়ামে ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড (India and New Zealand ) ম্যাচ। এদিন সকাল থেকেই আবহাওয়ার পূর্বাভাস মতো শুরু হয়ে গিয়েছে বৃষ্টি। শুক্রবার সকাল ৬ টা থেকে শনিবার সকাল ৬ টা অবধি হলুদ সতর্কতা (yellow weather warning ) জারি করেছে আবহাওয়া দফতর।






Source link