‘হাতে যা টিকা আছে, এই মাস অবধি চলবে’, আদর পুনাওয়ালার বক্তব্যে উদ্বেগ বাড়ল

Share Now





নিজস্ব প্রতিবেদন- সিরাম ইনস্টিটিউটের হাতে যা টিকা আছে, তা চলতি মাসেই শেষ হয়ে যাবে। আবার উৎপাদন শুরু হলে, তার জোগান বাজারে আসবে। নতুন টিকার জোগান জুলাইয়ের আগে আসবে না, জানালেন সিরাম কর্তা আদর পুনাওয়ালা। তাঁর এই ঘোষণা মাত্রই দেশজুড়ে উদ্বেগ বাড়ল। গোটা দেশে সংক্রমণ বাড়ার পর থেকেই টিকার অভাব দেখা দিয়েছে অনেক রাজ্যে। অনেক জায়গায় টিকার অভাবে বন্ধ হয়ে গিয়েছে টিকাকরণ কর্মসূচি। এই অবস্থায় সিরাম ইনস্টিটিউটের কর্ণধার আদর পুনাওয়ালা জানিয়েছেন, জুলাই মাস পর্যন্ত টিকার এই অভাব থাকবে।

দেশে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের পরে প্রতিদিনের আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লক্ষ পার করেছে। এই অবস্থায় টিকা সবথেকে বেশি জরুরি। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে আদার বলেন, ‘জুলাই মাসের পরে ফের টিকার জোগান বাড়বে। ততদিন টিকার অভাব থাকবে। জুলাই মাসের পর টিকার মাসিক উৎপাদন ৭ থেকে বেড়ে ১০ কোটি হবে বলেই জানিয়েছেন তিনি।’ কিন্তু এখানেই উঠেছে মোক্ষম প্রশ্ন, এই টিকার অভাব দেখা দিল কেন?  এর উত্তরে আদর জানিয়েছেন, তাঁরা প্রত্যাশাই করতে পারেন নি যে, দেশে কোভিডের সেকেন্ড ওয়েভ এত তাড়াতাড়ি আসবে। এর পাশাপাশি সিরাম কর্তা আরও জানেন, তাঁদের কাছে এত টিকার চাহিদাও ছিল না। তাই উৎপাদন ‘গো-স্লো’ মোডে চলে গিয়েছিল।

আরও পড়ুন: ফের মর্মান্তিক ঘটনা, সরকারি হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু ২৪ জনের

দেশে নতুন করে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করায়, কেন্দ্রের তরফে বেশি সংখ্যায় টিকা উৎপাদনের নির্দেশ আসে তাঁর সংস্থার কাছে। তার পরেই উৎপাদন বাড়ানোর প্রক্রিয়া শুরু করে সেরাম। কিন্তু যে পরিমাণ টিকা এই মুহূর্তে দেশে এখন প্রয়োজন, তা উৎপাদন করতে বেশ কিছুটা সময় লাগবে। সেই জন্যই জুলাই মাসের পর থেকে ফের টিকার উৎপাদন বাড়বে বলেই জানিয়েছেন সেরাম কর্তা।







Source link