মাছের মুড়ো নিয়ে বিয়েবাড়িতে তুমুল মারপিট! হাসপাতালে ১১ – people clash in wedding for fish piece 11 people injured

Share Now





হাইলাইটস

  • বর ও কনেপক্ষের মধ্যে প্রথমে তর্কাতর্কি থেকে হাতাহাতি, তারপরে একাবারে লাথালাথি-রৈ রৈ কান্ড।
  • পুলিশের কাছে পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
  • বিয়ে বাড়িতে এমন ঘটনায় হতবাক সকলে!

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: বিয়েবাড়িতে মাছের পিস নিয়ে তুমুল কাণ্ড। পছন্দের মাছের পিস নিয়ে মারপিট করে হাসপাতালে ভর্তি হল ১১ জন। কিল-ঘুঁসি-লাথি-চড় বাদ গেল না কিছুই। বিহারের গোপালগঞ্জের একটি বিয়ে বাড়িতে এমন ঘটনায় হতবাক সকলে!

গোপালগঞ্জের ভটবলিয়া গ্রামে বৃহস্পতিবার এই কাণ্ড ঘটেছে। মাছের মুড়ো (মাথা) না পাওয়া নিয়েই বাঁধে গন্ডগোল। বর ও কনেপক্ষের মধ্যে প্রথমে তর্কাতর্কি থেকে হাতাহাতি, তারপরে একাবারে লাথালাথি-রৈ রৈ কান্ড। তুমুল সংঘর্ষে ১১ জন আহত হয়, তাঁদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

টিকা দিতে যাওয়া মহিলা স্বাস্থ্যকর্মীদের হেনস্থা, গ্রেফতার তিন
এই ঘটনায় ইতিমধ্যে পুলিশে একটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগকারী সুদামা গন্ডের দাবি, ওইদিন তাঁর আত্মীয় ধনু গন্ডের বাড়িতে কনেপক্ষের লোকেরা আসে, তাদের মধ্যে ছিলেন ওই গ্রামেরই হীরা গন্ড নামে এক ব্যক্তি।

সুদামা গন্ডের দাবি খাবার দেওয়ার সময় তিনি মাছ পরিবেশন করছিলেন, এসময় হীরা গন্ডকে মাছের মাথা দিতে দেরি হওয়াতেই ঝামেলার সূত্রপাত। অভিযোগ, এরপরেই অজয় গন্ড, রাজা গন্ড সহ পাঁচ জন লাঠি ও লোহার রড নিয়ে সুদামা গন্ড, ছেলে মুন্না গন্ড ও পুত্রবধূ রিনার উপরে চড়াও হয়। তাদের ব্যাপক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

আম নিয়ে কূটনীতি খাটল না পাকিস্তানের! পাশে নেই বন্ধু চিনও
পুলিশের কাছে পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আহতদের প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে, সেখান থেকে তাঁদের সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়।

অবশ্য এর আগেও গোপালগঞ্জে এমন ঘটনা ঘটেছে। আগের বার এক বিয়ে বাড়িতে মুরগির মাংসের সঙ্গে লিট্টি দেওয়া হয়নি বলে ব্যাপক ঝামেলা হয়। এমনকি ঘটনায় গুলিও চলে এবং একজনের মৃত্যু হয়।






Source link