ফ্যাট থেকে ফিট বলিউড তারকারা, these eight bollywood stars who have been fit from fat

Share Now





জারিন খান

জারিন খান

হেট স্টোরি ৩, বীর (‌২০১০)‌ ছবিতে অভিনেত্রী জারিন খানকে নিশ্চয়ই সকলের মনে আছে?‌ জারিন প্রধানত হিন্দি সিনেমায় অভিনয় করলেও তাঁকে একাধিক তামিল, তেলেগু সিনেমাতেও অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। জারিন খান এক সাক্ষাতকারে জানিয়েছিলেন যে তিনি যখন বলিউডে প্রথম প্রবেশ করেছিলেন তখন তাঁকে তাঁর শরীর নিয়ে বিদ্রুপের সম্মুখীন হতে হয়েছিল, কারণ তাঁর তখন ওজন ছিল ১০০ কেজির আশেপাশে। কিন্তু এখন জারিন তাঁর ডায়েট, শরীর চর্চা ও যোগাসনের মাধ্যমে নিজেকে ৫৭ কেজিতে এনে ফেলেছেন। এটা কিন্তু সত্যিই অনুপ্রাণিত করার মতোই খবর।

গণেশ আচার্য

গণেশ আচার্য

বলিউডের জনপ্রিয় কোরিওগ্রাফার গণেশ আর্চায়ের দৈহিক বহর কেমন তা জানতে আর কারও বাকি নেই। কিন্তু তিনি তাঁর কাজের দিক থেকে যথেষ্ট নিষ্ঠাবান। তাঁর জনপ্রিয় কোরিওগ্রাফি হল সিংঘম ও বডিগার্ডে। তবে গণেশ আচার্য সম্প্রতি জানিয়েছেন যে তিনি ৯৮ কেজি ওজন কমিয়েছেন, শুধুমাত্র দৈনিক রুটিন অনুসরণ করে। তিনি দুপুর ১২ টা থেকে রাত আটটার মধ্যে মধ্যাহ্ন ও নৈশ ভোজ সেরে ফেলেন এবং এই সময় থেকে কেউ তাঁকে বের করে আনতে পারেনি।

পরিণীতি চোপড়া

পরিণীতি চোপড়া

দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া এক সময় অতিরিক্ত মোটা ছিলেন। তাঁর প্রথম ছবি কিল দিল ২০১৪ সালে মুক্তি পায়, তা সেভাবে বলিউড বক্স অফিসে জমে উঠতে পারেনি। এরপরই ২৬ বছরের পরিণীতি বুঝতে পারেন যে তাঁকে এরকম মোটা হয়ে থাকলে চলবে না এবং পরিকল্পনা করে মাত্র ২ বছরে তিনি নিজেকে মোটা থেকে তন্বী করে তুলেছেন।

আলিয়া ভাট

আলিয়া ভাট

স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ারের চুলবুলি সসি সানায়া এই ছবির শুটিং শুরুর আগে তাঁকে ২০ কেজি ওজন কমানোর কথা বলা হয়েছিল। আলিয়া সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেন, প্রতিদিন নিজেকে অনুপ্রাণিত করতে থাকেন এবং ৬ মাসের মধ্যে ১৬ কেজি ওজন কমিয়ে দেন। গুল্লি বয়, ডিয়ার জিন্দেগী, রাজি, হাইওয়ে সহ বহু হিট ছবিতে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে আলিয়াকে। আলিয়া এখন খুব স্বাস্থ্যকর ও সচেতন ডায়েটে রয়েছেন। জাঙ্ক ফুডের ভক্ত আলিয়া যখন এর বিকল্প স্বাস্থ্যকর খাবারে পেয়ে যান তখন তিনি জাঙ্ক ফুড খাওয়া ছেড়ে দেন।

সোনাক্ষী সিনহা

সোনাক্ষী সিনহা

দাবাং গার্ল হিসাবে খ্যাত সোনাক্ষী সিনহার একসময় অতিরিক্ত ওজন ছিল। ১৮ বছর বয়সে তিনি যখন ট্রেডমিলে হাঁটতেন তখন রীতিমতো হাঁপিয়ে উঠতেন। তাঁর এই অতিরিক্ত ওজনের জন্য স্কুলেও সোনাক্ষীকে হেনস্থা করা হত, কিন্তু এরপরই সোনাক্ষী নিজেকে ভালোববাসতে শুরু করলেন। সোনাক্ষী বরাবরই খেতে খবু পছন্দ করতেন কিন্তু তিনি তাঁর ডায়েট থেকে সব ধরনের জাঙ্ক খাবার বাদ দিয়ে দেন। চিট মিল হিসাবে তিনি একমাত্র পিৎজ্জা খান। এখন তিনি শুধু ট্রেডমিলে দৌড়াতেই সক্ষম নন, বরং তাঁর দেহের গঠন দেখে এখন অনেকেই অবাক বনে যান। যে সব মেয়েরা স্থুলতা নিয়ে হাসির খোরাক হন, তাঁদের কাছে সোনাক্ষীর এই বদল অবশ্যই অনুপ্রাণিত করবে।

 অর্জুন কাপুর

অর্জুন কাপুর

এরকম সুঠাম দেহ সবসময় ছিল না অর্জুন কাপুরের। বরং তিনি বেশ মোটাই ছিলেন। আলিয়া ভাটের সঙ্গে ২ স্টেট সিনেমার সময় অর্জুনের তিন বছর সময় লেগেছিল ৫০ কেজি কমাতে। অন্যান্য বলিউড অভিনেতাদের মতো অর্জুনের সুঠাম দৈহিক গড়ন ছিল না, বরং তার জন্য তাঁকে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছে। তিনি এখনও নিয়মিত শরীরচর্চা ও কঠিন ডায়েটে রয়েছেন।

সারা আলি খান

সারা আলি খান

কেদারনাথ থেকে সিম্বা সারা আলি খান বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছেন। নিজের অসাধারণ অভিনয় দক্ষতা দিয়েই শুধু নয়, তাঁর শারীরিক গঠনের আশ্চর্যজনকভাবে বদল ঘটেছে, যা দেখে দর্শকরা হতবাক। যেহেতু সারা পিসিওএস-এ ভুগছিলেন তাই তাঁর পক্ষে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা খুবই কঠিন কাজ ছিল। এক সাক্ষাতকারে সারা জানিয়েছিলেন যে সকলে গ্রহণযোগ্যতা ও সমতার কথা বলেন কিন্তু কোনও সিনেমায় নায়কের পাশে ৯৬ কেজির নায়িকাকে কেউ দেখতে চাইবেন না। ৯৮ কেজি থেকে স্লিম চেহারায় আসতে সারা কঠিন পরিশ্রম করেছেন কারণ পিসিওএসের শিকার হয়েও তিনি ওজনকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পেরেছেন।

‌ ভূমি পেডনেকার

‌ ভূমি পেডনেকার

আয়ুষ্মান খুরানার সঙ্গে ভূমি পেডনেকারকে দেখা গিয়েছিল দম লাগাকে হ্যাইশা সিনেমায়। এখানে ভূমির চরিত্র অনুযায়ী তাঁকে মোটা দেখানো হয় এবং তার জন্য ভূমিকে ওজন বাড়াতে হয়েছিল। কিন্তু এই ছবি শেষ হওয়ার পর থেকেই ভূমি আবার নিজের কঠিন ডায়েটে চলে আসেন, যার ফলস্বরূপ ছিপছিপে ভূমি কিছু মাসের মধ্যেই ফিরে আসেন।

সমকামী প্রেমিকাকে পেতে স্বামীকে ছেড়েছেন এই অভিনেত্রীরা, একনজরে গুঞ্জনে থাকা কিছু সম্পর্কসমকামী প্রেমিকাকে পেতে স্বামীকে ছেড়েছেন এই অভিনেত্রীরা, একনজরে গুঞ্জনে থাকা কিছু সম্পর্ক






Source link