‘নমামি গঙ্গে’ কলুষিত, গঙ্গায় কোভিড মৃতদেহ ফেলা নিয়ে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী – some states are dumping covid bodies to river, cm mamata banerjee expresses anger over it

Share Now





এই সময়: উত্তরপ্রদেশে করোনা আক্রান্তদের দেহ সৎকার না করে গঙ্গা ভাসিয়ে দেওয়ার ঘটনায় উদ্বিগ্ন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর স্বপ্নের প্রকল্প ‘নমামি গঙ্গে’ কী ভাবে কলুষিত হচ্ছে, সে কথা বলে আক্রমণও শানান তিনি। বৃহস্পতিবার তিনি নবান্নে প্রধানমন্ত্রীর ডাকা কোভিড নিয়ে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের বলেন, ‘নমামি গঙ্গা আজ মৃত্যুপুরী গঙ্গায় রূপান্তর করা হয়েছে। মানুষ গঙ্গাজলে পা দিতে ভয় পাচ্ছে। গঙ্গাজলে পুজো করতে ভয় পাচ্ছে। সারা দেশকে দূষিত করে দিচ্ছে। দেশকে এ জন্য ভুগতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রীর করোনা বৈঠকে আমায় ডাকা হয়নি: মমতা
প্রধানমন্ত্রীকেই এর জন্য নিশানা করে মমতা বলেন, ‘এর কোনও স্থায়ী সমাধান করা হচ্ছে না। নেওয়া হচ্ছে না কোনও ব্যবস্থা। আর প্রধানমন্ত্রী বলছেন করোনা কমে গিয়েছে। উত্তরপ্রদেশের জেলাশাসকদের কথা শুনলেন। কিন্তু তাঁদের কাছে একবারও এ নিয়ে প্রশ্ন করেছেন?’ উত্তরপ্রদেশ, বিহারের মতো বেশ কয়েকটি রাজ্যে যেভাবে করোনায় মৃতদের দেহ গঙ্গায় ভাসিয়ে দেওয়া হচ্ছে, তা নিয়ে পরিবেশকর্মী থেকে চিকিৎসক, প্রত্যেকেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। মৃতদেহ থেকে করোনার সংক্রমণ না-হলেও জলদূষণ এবং অন্যভাবে পরিবেশ দূষণের শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। মালদহ সীমানা দিয়ে সেই গলিত শবের সারি এ রাজ্যেও ঢুকে পড়তে পারে, এমন আশঙ্কায় বাড়তি ব্যবস্থাও নিয়েছিল রাজ্য প্রশাসন। যদিও এখনও পর্যন্ত গঙ্গায় ভেসে আসা দেহ এ রাজ্যে ঢুকে পড়ার কোনও খবর মেলেনি।

ভয়াবহ! বিহারের পর এবার উত্তরপ্রদেশেও নদীতে ভাসছে একের পর এক দেহকরোনা আবহে ওষুধ-অক্সিজেন সিলিন্ডারে GST প্রত্যাহারের দাবি, মোদীকে চিঠি মমতার
এ দিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘মনে রাখবেন প্রকৃতি অন্যায় সহ্য করে না। গ্লোবাল ওয়ার্মিং চলছে। সেই সময় গঙ্গাকে এ ভাবে বিষাক্ত করে তোলার উদ্দেশ্য কী? কেন্দ্রীয় সরকার বসে বসে দেখছে। ভোটের পর রাজ্যে কয়েকটি আশান্তির ঘটনা দেখতে কেন্দ্রীয় দল, মানবাধিকার কমিশনকে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু উত্তরপ্রদেশে গঙ্গায় এত মৃতদেহ ভাসানো হলো। কটা কেন্দ্রীয় দল সেখানে গিয়েছে? আমাদের নদীমাতৃক দেশ। সেখানে মৃতদেহ সৎকারের কোনও পরিকাঠামো নেই?’ তাঁর সংযোজন, ‘আমরা গঙ্গায় নজর রাখছি। গঙ্গায় মৃতদেহ দেখলে তা সৎকারের ব্যবস্থা করেছি। কিন্তু কী ভাবে সম্ভব হবে?’

অবিলম্বে সরকারি কর্মীদের টিকাকরণ করুন, ২০ লাখ ভ্যাকসিন চেয়ে মোদীকে চিঠি মমতার

নদী বিশেষজ্ঞ তথা পশ্চিমবঙ্গ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের চেয়ারম্যান কল্যাণ রুদ্র বলেন, ‘যে কোনও মৃতদেহ নদীতে পড়লে জলের শুদ্ধতা নষ্ট করে। কারণ মৃতদেহ জলের দ্রবীভূত অক্সিজেনের মাত্রা ও জৈব রসায়নিক অক্সিজেনের চাহিদাকে কমিয়ে দেয়। কলিফর্ম ব্যাকটেরিয়ার প্রাদুর্ভাব বাড়িয়ে দেয়। যা মানব শরীরের পক্ষে বিপজ্জনক।’ তাঁর যুক্তি, ‘প্রবহমান জলধারা বা নদীর জল নদী নিজেই শুদ্ধ রাখতে পারে। সূর্যের আলো,বাতাস ও তার গতিশীলতার উপর এটা নির্ভর করে। কিন্তু গঙ্গায় সেই ভাইরাসের কার্যকারিতা কতটা তা এখনই বলা যাবে না।’ পরিবেশ আন্দোলনের কর্মী নব দত্তর কথায়, ‘গঙ্গায় কোভিডে আক্রান্তদের মৃতদেহ ফেলা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের সঙ্গে একমত। গঙ্গা দূষণ নিয়ন্ত্রণে সকলকেই সতর্ক হতে হবে।’






Source link