করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নাগরিকদের কণ্ঠরোধ অনুচিত, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

Share Now





নিজস্ব প্রতিবেদন: গণতান্ত্রিক দেশে সোশ্যাল মাধ্যমে যদি কেউ কিছু মত প্রকাশ করে, তবে সেখান দমনমূলক নীতি চালানো অনুচিত, তেমনই মত সুপ্রিম কোর্টের। তা ঘটলে সেটা নাগরিকের কণ্ঠরোধের সামিল হবে, কড়া ভাবে জানাল শীর্ষ আদালত। 

করোনা (Covid) পরিস্থিতি নিয়ে নেটমাধ্যমে (social media) নিজেদের সমস্যার কথা তুলে ধরতেই পারেন সাধারণ মানুষ, সেক্ষেত্রে কোনও দমননীতি (no clampdown on information) চালানো উচিত নয়। করোনা অতিমারীর দ্বিতীয় পর্বে এমনই দৃঢ় মত প্রকাশ সুপ্রিম কোর্টের (supreme court)। 

দেশে কোভিড ফের ভয়ঙ্কর (Covid surge) আকার ধারণ করার পিছনে মোদী সরকারের নেতিবাচক ভূমিকা নিয়ে দেশ জোড়া বিপুল ক্ষোভ কয়েকদিন ধরেই অভিযোগের আকারে জমছে ফেসবুক-টুইটারে। এবং কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সেই সব অভিযোগ আটকানোর অভিযোগও উঠছে। ঠিক এই পরিস্থিতিতে এই মন্তব্য সুপ্রিম কোর্টের।

আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ৩ লক্ষ ৮৬ হাজারের বেশি, মৃতের সংখ্যা ৩,৪৯৫

কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে দেশ জুড়ে অব্যবস্থা ও বিশৃঙ্খলার যে ছবি দেখা যাচ্ছে, তা নিয়ে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা দায়ের করে শীর্ষ আদালত। শুক্রবার তার শুনানি চলাকালীন নেটমাধ্যমে নাগরিকদের অভিযোগের কথা ওঠে। সেই প্রসঙ্গেই আদালত জানিয়ে দেয়, কোনও ধরনের তথ্য ধামাচাপা দেওয়াকে সমর্থন করা হবে না এবং এই ধরনের কাজকে নীতিবিরুদ্ধ বলেই মনে করে তারা। তার পরেও এই ধরনের দমননীতি চালানো হলে তা আদালতের অবমাননা বলেই গণ্য হবে।

শুক্রবার সওয়াল জবাব চলাকালীন আদালত জানায়– দেশের কোনও নাগরিক যদি নেটমাধ্যমে অভাব-অভিযোগ তুলে ধরেন (SOS messages on social media) সে ক্ষেত্রে সেই তথ্যের উপর দমননীতি নেওয়াকে সমর্থন করা চলে না।

অসুস্থ দাদুর জন্য অক্সিজেন পাওয়া যাচ্ছে না এই মর্মে টুইটারে পোস্ট করায় শশাঙ্ক যাদব নামে উত্তরপ্রদেশের এক তরুণের বিরুদ্ধে কদিন আগে অভিযোগও দায়ের হয় থানায়। তাঁকে ক্রিমিনাল বলেও দাগিয়ে দেওয়া হয়। এই পরিস্থিতিতেই নেটমাধ্যমে নাগরিকদের মতামত দমন অনুচিত বলে জানাল সুপ্রিম কোর্ট।

শীর্ষ আদালত ভ্যাকসিনের দাম নিয়েও প্রশ্ন তোলে। কেন রাজ্যে এরকম আর কেন্দ্রে একরকম দাম ভ্যাকসিনের? সুপ্রিম কোর্ট বলে, দেশের দরিদ্র মানুষের পক্ষে অর্থের বিনিময়ে টিকা (vaccine) নেওয়া কঠিন, এটাও ভাবতে হবে কেন্দ্রকে। 

আরও পড়ুন: এবার খুলে দেওয়া হোক দেশজ কোভিড-তথ্যের দরজা, প্রধানমন্ত্রীকে আবেদন ২০০ বিজ্ঞানীর







Source link