এবার জলেও করোনা! এই নদী থেকে নেওয়া সমস্ত স্যাম্পেলেই মিলল সংক্রমণ – coronavirus found in sabarmati river of gujarat all samples found infected

Share Now





এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় বেসামাল ভারত ধীরে ধীরে সুস্থতার পথে। সংক্রমণের দৈনিক পরিসংখ্যান কমলেও শেষ হচ্ছে না করোনা নিয়ে উদ্বেগ। রোজ নতুন করে সামনে আসছে একের পর এক তথ্য যা নিয়ে নতুন করে সংক্রমণ নিয়ে তৈরি হচ্ছে আশঙ্কা। নিকাশি নালার জলে করোনা জীবাণুর অস্থিত্বের পর এবার নদীর জলেও মিলল করোনা সংক্রমণ। গুজরাটের সবরমতী নদীর জলের নমুনা পরীক্ষায় উঠে এল চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট। জলে মিলেছে সংক্রমণের অস্তিত্ব।

শুধু সবরমতী নদীতেই নয়, চান্দোলা ও কাঁকরিয়া জলাশয়ের জলেও মিলেছে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব। নদীর জলে সংক্রমণের অস্থিত্ব যে কতটা ভয়াবহ হতে পারে তা ভেবেই শঙ্কা প্রকাশ করছেন বিশেষজ্ঞরা। গুজরাত ও আহমেদাবাদের মাঝামাঝি সবরমতী নদী থেকে নেওয়া জলের যতগুলি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে তাঁর ২৫ শতাংশের মধ্যে করোনা ভাইরাস পাওয়া গিয়েছে। এর আগে গঙ্গা নদীর সঙ্গে যুক্ত নিকাশি নালাতে সংক্রমণ পাওয়া গিয়েছিল। এবার প্রাকৃতিক মিঠে জলে করোনার নমুনা মেলায় চিন্তার ভাঁজ বিশেষজ্ঞদের কপালে।

আইআইটির অধ্যাপক মণীশ কুমার জানিয়েছেন, ২০১৯-এর ৩ সেপ্টেম্বর থেকে ২৯ ডিসেম্বরের মধ্যে সপ্তাহে এক বার করে সবরমতী এবং চান্দোলা ও কাঁকরিয়া হ্রদ থেকে জলের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে । এর মধ্যে সবরমতী থেকে ৬৯৪ এবং বাকি দুই সরোবর থেকে ৫৪৯ ও ৪০২টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল তাঁর ২৫ শতাংশই বলা যায় করোনা পজিটিভ। এই রিপোর্ট আসতেই দেশের বাকি নদী ও বড় বড় জলাশয়ের নমুনা পরীক্ষার কথা ভাবছেন।

সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নদীতে একের পর এক মৃতদেহ ভেসে আসার ছবি ঘিরে ছড়ায় আতঙ্ক। বিহার এবং উত্তরপ্রদেশের নদীতেই ভেসে উঠেছে ৭০টি দেহ। এই দেহগুলি করোনা আক্রান্ত রোগীর এবং করোনায় মৃত্যুর পর দেহ সৎকার না করে নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয় বলে আশঙ্কা। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে, করোনা রোগীর মৃতদেহ থেকে কী ছড়াতে পারে করোনা? নদীর জল থেকে কোনওভাবে কোভিড সংক্রমণ সম্ভব?

করোনায় মৃত্যু হলে মৃতদেহ থেকে ভাইরাস ছড়ায় কিনা, তা স্পষ্ট নয়। বহু বিশেষজ্ঞের দাবি, করোনায় কোনও ব্য়ক্তির মৃত্যু হলে তাঁর থেকে করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা অনেক কম। কিন্তু এখনও করোনা রোগীর দেহ সৎকারের জন্য নির্দিষ্ট নিয়মাবলী জারি রেখেছে প্রশাসন। এক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক এবং অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স (AIIMS)-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, করোনা আক্রান্তের দেহ অন্যের হাতে তুলে দেওয়ার ক্ষেত্রে করোনা সংক্রমণের ভয় থাকে।

কিন্তু জল থেকে কী ছড়াতে পারে করোনা? বিশেষজ্ঞদের কথায়, SARS-CoV-2 ভাইরাস মূলত ড্রপলেট, কফ, কাশি, থুতু নিঃশ্বাস থেকে ছড়ায়। এখনও পর্যন্ত এমন কোনও তথ্য সামনে আসেনি যা জানায় নদীর জল থেকে করোনা ছড়ায়। এমনকী, সুইমিং পুলের জল থেকেও করোনা সংক্রমণ ছড়াতে পারে, এই তথ্য গবেষণায় সামনে আসেনি। WHO-এর কথায়, ‘সাঁতার কাটার সময় জলের মাধ্যমে Covid-19 ভাইরাস ছড়ায় না। কোনও কোভিড সংক্রামিত ব্যক্তির সংস্পর্শে এলেই করোনা ছড়ানোর সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু গঙ্গায় যে মৃতদেহগুলি ভেসে উঠছে সেখানে ভাইরাস এবং ব্যাক্টেরিয়ার উপস্থিত থাকতে পারে এবং গঙ্গাকে আরও দূষিত করতে পারে। এক্ষেত্রে যাঁরা এই মৃতদেহগুলির সংস্পর্শে সরাসরি আসছেন, তাঁদের স্বাস্থ্যের অবনতি হতে পারে।






Source link