ইচ্ছাকৃত ভাবে Oxygen সরবরাহ বন্ধ, নীল হয়ে ওঠেন ২২ জন Covid রোগী! তদন্তে যোগী সরকার

Share Now





নিজস্ব প্রতিবেদন:  হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নির্দেশেই কি ৫ মিনিটের জন্য অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ হয়েছিল?  আর তার জেরেই কি ২২ জন রোগীর মৃত্যু?  আপাতত ভাইরাল হওয়া অডিওতে হাসপাতালের মালিকের এমনটাই দাবি। অক্সিজেন না পেয়ে নীল হয়ে ওঠে ২২ জন রোগীর শরীর! তারপরই, আশঙ্কাজনক অবস্থায় মৃত্যু হয় তাঁদের। এই ঘটনায় রীতিমত তোলপাড় যোগী রাজ্য। ঘটনাটি ঘটেছে গাজিয়াবাদের এক বেসরকারি হাসপাতালে। 

 ঠিক কী ঘটেছিল? ভাইরাল হওয়া অডিওটাই বা কতটা সত্য! তা নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। হাসপাতালের মালিক অরিঞ্জয় জৈনের কন্ঠে যে অডিও প্রকাশ্যে এসেছে। যেখানে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে,”উত্তরপ্রদেশ জুড়ে অক্সিজেনের অভাব, তাই একটা ফেক মহড়া (“mock drill”) করা হবে। যেখানে দেখা হবে অক্সিজেন বন্ধ করলে, কারা বেঁচে থাকতে পারে, আর কারা নয়! তাঁকে প্রশাসনের তরফে বলা হয়েছিল, মুখ্যমন্ত্রীও অক্সিজেন জোগাড় করতে পারছেন না। ফলে রোগীদের হাসপাতাল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হোক”। 

অডিও রেকর্ডে তাঁকে আরও বলতে শোনা গিয়েছে, “রোগীদের পরিবারের লোকজনকে বোঝানো শুরু হয়। যে রোগীদের অন্য়ত্র নিয়ে যান। কিন্তু তাঁরা মুমূর্ষ রোগী নিয়ে যেতে রাজি হয় না। তখন আমি জানাই,  একটা ভুয়ো মহড়া (“mock drill”) করা যাক। যেখানে অক্সিজেন বন্ধ করলে দেখা যাবে, কারা প্রাণ হারাবেন এবং  আর কারা বেঁচে যাবেন। ২৭ এপ্রিল সকাল ৭টায় সকলের অগোচরে তাই ঘটে। ৫ মিনিটের জন্য হাসপাতালে অক্সিজেন বন্ধ করা হয়েছিল। ২২ জন এমন রোগীকে চিহ্নিত করা হয়, যাঁরা মারা যেতে পারেন। তাঁদের দেহ নীল হয়ে ওঠে।’’

এই অডিও সত্যতা যাচাই করছে উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন।  এই ঘটনার পর আগ্রার জেলাশাসক প্রভু এন সিংহ  জানিয়েছে, সে সময় ওই হাসপাতালে ৭ জন আক্রান্তের মৃত্যু হলেও অক্সিজেনের অভাবে কেউ মারা যাননি। ওই হাসপাতালে ২২ জনের মৃত্যুর খবর সত্যি নয়। তদন্ত জারি রয়েছে ।’ কিন্তু যদি এই ঘটনা সত্যি হয়, তাহলে প্রশ্ন উঠছে এই মহড়ায় রোগীদের বিপদে ফেলা সত্যিই কি যথাযথ!

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)

 







Source link