আংশিক লকডাউনে আরও কিছু ছাড়, WB Govt changes order on partial lockdown in West Bengal due to surge of Covid-19

Share Now





নতুন নির্দেশিকায় অনুষ্ঠান বাড়ি

নতুন নির্দেশিকায় অনুষ্ঠান বাড়ি

এদিন নবান্ন থেকে জারি করা আংশিক লকডাউনের নতুন নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, বিয়ে বাড়ি কিংবা পারিবারিক কোনও অনুষ্ঠানে কড়া নির্দেশিকা এবং কঠোর করোনা বিধি অনুসরণ করে করার কথা বলা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে, মাস্ক, স্যানিটাইজার, শারীরিক দূরত্ব অনুসরণ করে করা যেতে পারে। তবে তাতে সর্বোচ্চ উপস্থিতি ৫০-এ নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। এইবিধি অবশ্য শুক্রবারের নির্দেশে ছিল না।

 বেশ কিছু দোকান খোলায় ছাড়

বেশ কিছু দোকান খোলায় ছাড়

বাজার-হাটে দোখান খোলার কথা সকাল ৭-১০টা এবং বিকেল ৩-৫ টা। পাইকারি কিংবা আউটলেটগুলির ক্ষেত্রেও এই নির্দেশিকা প্রযোজ্য হবে। তবে এর ছাড়ের মধ্যে রয়েছে স্বাস্থ্যের সঙ্গে যুক্ত, ইলেকট্রিক, টেলিকম, ট্রান্সপোর্ট, মুদি, মিষ্টি, মাংসর, দুধের দোকান। এগুলি কঠোর নিয়মবিধির বাইরে থাকবে বলে জানানো হয়েছে। তবে পাবলিক প্লেসে মাস্ক, স্যানিটাইজার এবং সামাজিক দূরত্ব অবশ্য পালনীয় কর্তব্যের মধ্যে রাখা হয়েছে।

 যান চলাচলে নেই কোনও নিষেধাজ্ঞা

যান চলাচলে নেই কোনও নিষেধাজ্ঞা

শুক্রবারের মতো এদিনের নিষেধাজ্ঞায় রাস্তায় যান চলাচলে কোনও নিষেধাজ্ঞা রাখা হয়নি। অর্থাৎ বাস-ট্যাক্সি কিংবা ট্রেন চলাচলের ওপরে কোনও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়নি এদিনও।

শুক্রবারের নির্দেশিকা

শুক্রবারের নির্দেশিকা

শুক্রবার আংশিক লকডাউন নিয়ে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল। সেখানে শপিংমল. সিনেমাহল, রেস্তোরাঁ, পার্লার, সুইমিং পুল, জিম বন্ধ করে দেওয়ার কথা বলা হয়। তবে সেখানে ওষুধের দোকান এবং অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবায় ছাড় দাওয়া হয়েছিল।

আংশিক লকডাউ কার্যকর করতে পুলিশের ধরপাকড়

আংশিক লকডাউ কার্যকর করতে পুলিশের ধরপাকড়

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে প্রথম আংশিক লকডাউনের সকাল ১০ টার পরে রাস্তাঘাট ফাঁকা হতে শুরু করে। অনেক জায়গাতে পুলিশের গাড়ি যাওয়ার আগে ব্যবসায়ীরা দোকান গুটিয়ে ফেলেন। আবার অনেক জায়গায় অনিয়ম চোখে পড়ে। অনেক জায়গাতেই পুলিশ দেখা যায় মাইক নিয়ে প্রচার করতে। কোনও কোনও জায়গায় বিধিনিশেধ না মানায় পুলিশ বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতারও করে।






Source link